[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



বাংলাদেশকে নিয়ে রমিজ রাজার বাজে মন্তব্য : সামাজিকমাধ্যমে যুদ্ধ ঘোষণা


প্রকাশিত: February 20, 2015 , 8:17 pm | বিভাগ: আন্তর্জাতিক খেলা,ইন্টারন্যাশনাল,বিশ্বকাপ-২০১৫,স্পেশাল,স্পোর্টস


লাইভ প্রতিবেদক: বাংলাদেশ-আফগানিস্তানের ম্যাচ চলছিল তখন। ধারাভাষ্যে রমিজ রাজা আর সৌরভ গাঙ্গুলি। হঠাৎ করেই পাকিস্তানি ধারাভাষ্যকার একের পর এক বিরুপ মন্তব্য করতে শুরু করে ১৭ কোটি মানুষের প্রাণের বাংলাদেশ ক্রিকেট দল সম্পর্কে। শুধু তাই নয় বাংলাদেশকে নিয়েও যাচ্ছেতাই বলে বসেন এই পাক সাবেক খেলোয়াড়। তাঁর বিতর্কিত মন্তব্যগুলো তুলে ধরা হল বাংলায় :

– “আনামুল হক এর নামে কেন আবার ‘বিজয়’ লাগানো? এ ধরনের ‘পেট নেইম’ শুধু বাংলাদেশেই দেখা যায়”
– “বাংলাদেশের চাপ নিয়ে খেলার অভিজ্ঞতা নেই, যা পাকিস্তানের আছে”
– “মালিঙ্গার ৪ বলে ৪ উইকেট নেয়ার রেকর্ড আছে, যার সামর্থ্য বাংলাদেশের নেই”
– “ওহ! ঢাকায় ভয়ংকর ট্রাফিক জ্যাম, ম্যাচ শুরুর অনেক আগে মাঠে যাওয়ার জন্য রওয়ানা দিতে হয়েছিল’ (ওহ! বাংলাদেশ, টেরিবল ট্রাফিজ জ্যাম ইন ঢাকা। উই হ্যাড টু স্টার্ট…’)”
– “The BCB has no major part in international cricket”.

আর তারপর বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হবার পর বৃহস্পতিবার রাত  থেকেই ফেসবুক এবং টুইটারে বাংলাদেশিরা পাকিস্তানি এ ধারাভাষ্যকারকে তুলোধুনো করতে শুরু করেছে। রমিজ রাজার পদত্যাগের দাবিতে একের পর এক স্ট্যাটাস আর কমেন্টে সয়লাব এখন ফেসবুক। চলছে একের পর এক টুইট।

এই নিয়ে প্রতিবাদ জানাতে ফেসবুকে ইভেন্টও খোলা হয়েছে। ইভেন্ট আহ্বানকারী এনায়েত শাওন  বলেন, ‘বাংলাদেশ নিয়ে বাজে মন্তব্য যেই করুক তাকে বিনা চ্যালেঞ্জে ছেড়ে দেওয়া হবে না,… এখন তথ্য প্রযুক্তির যুগ এটাকে কাজে লাগিয়ে আমরা প্রতিবাদ করছি… কারণ আন্তর্জাতিক পরিসরে আমাদের দেশকে কারো ছোট করার অধিকার নাই…বিসিবি’র অবশ্যই আইসিসিকে জানানো উচিত এবং যাতে তারা এই বিশ্বকাপ চলাকালেই ব্যবস্থা নিতে পারে।…ঠিক যেভাবে সিধুর হঠকারিতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল।’

আসিফ আহমেদ কামাল নামের একজন ফেসবুকে লিখেন, ” এরকম জঘন্য ধারাভাষ্যকারকে বিশ্বকাপে সব ম্যাচের ধারাভাষ্য থেকে অপসারণ করতে হবে। ”

জেবুন্নেসা তৃপ্তি লিখেন, ” এ আবার কেমন অসভ্যতা! ১৯৭১ এর দুঃস্মৃতি কি তারা এখনও ভুলতে পারেনি? ”

ভারতীয় সাবেক ক্রিকেটার নভোজ্যত সিং সিধুও এর আগে বাংলাদেশকে নিয়ে বাজে মন্তব্য করেছিলেন। তখন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছিল। শাস্তিস্বরূপ তাকে ইএসপিএন ধারাভাষ্য প্যানেল থেকে অপসারণ করা হয়েছিল।

রমিজ রাজাকেও এবার চরম মুল্য দিতে হবে এমন আশা করছে কোটি কোটি বাঙ্গালী। দেখা যাক তাদের প্রত্যাশা পূরণ হয় কতটুকু!

 

ঢাকা, ২০ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম) // এসএনটি