[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



পবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের গ্রীষ্মের ছুটি কেটেছে হৈচৈ আর আড্ডায়


প্রকাশিত: June 29, 2015 , 5:28 pm | বিভাগ: আপডেট,পাবলিক ইউনিভার্সিটি,ফিচার,বরিশালের ক্যাম্পাস


PSTU studentsমুস্তাফিজুর রহমান পাপ্পু, পবিপ্রবি: আড্ডা, হৈচৈ, চেঁচামেচি আর মায়ের হাতের রান্না খেয়ে ভালোই সময় কেটেছে আরিফের। একদিকে গরম অন্যদিকে বৃষ্টি। এরমধ্যেই পুরনো বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে চলে জম্পেস আড্ডা আর নানা বিষয়ে গল্পগুজবের মেতে থাকা। আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে বেড়ানো ও দাওয়াত খেয়েও সময় কেটেছে। গল্পগুজবে কখন যে সন্ধ্যা গড়িয়ে রাত হয়ে গেছে তার খেয়াল ছিলো না।

এভাবেই গ্রীষ্মকালীন ছুটি কাটানোর বিষয়টি ক্যাম্পাসলাইভকে তুলে ধরেন পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পবিপ্রবি) ডিভিএম ৩য় সেমিস্টারের ছাত্র মো. আরিফুর রহমান।

তিনি বলেন, গ্রীস্মের ছুটিতে আমরা মৌসুমি ফলমূল খেতে পেরেছি অনেক।কিন্তু নিন্মচাপ ও অধিক বৃষ্টিপাতের ফলে সেভাবে কেউ বাসা বাড়ি থেকে বের হতে পারেনি। তবে অনেকদিন পর বাড়ির সবার সাথে দেখা আর বাবা-মা এবং ভাই-বোনদের নিয়ে একসঙ্গে ইফতারি করতে পারার আনন্দটাই অন্যরকম।

গরমের ছুটি কাটিয়ে ক্যাম্পাসে এসেছেন পবিপ্রবির ছাত্র-ছাত্রীরা।বাড়িতে আপনজন আর প্রিয়জনদের সঙ্গে কেমন কেটেছে ছুটি?বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিরে তাদের অনেকেই সে অভিজ্ঞতা আর অনুভূতি শেয়ার করেছেন ক্যাম্পাসলাইভকে।

তারা জানান, এবার বর্ষার শুরুতে গ্রীষ্মের ছুটি হয় ক্যাম্পাস।এতে ভিন্ন ধর্মী অভিজ্ঞতা হয়েছে অনেকের।

ডিভিএম ৫ম সেমিস্টারের ছাত্রী আনিকা অনি বলেন, অনেক ভালো কেটেছে এই ছুটি, পরিবারের সাথে মজার সময় পার করেছি।

একই সেমিস্টারের ছাত্র মো. আরিফুর রহমান রায়হান ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, গ্রীষ্মের ছুটি এবারেও বর্ষার মধ্যে হয়েছে। এ ছুটি আরো কিছুদিন আগে পেলে ভালো হতো।

এনএফএস ফ্যাকাল্টির ৫ম সেমিস্টারের ছাত্র রিজ্জাকুল হায়দার রাজীব বলেন, ভালই, পরীক্ষা শেষ, অনেক দিন ধরে পরীক্ষা ছিল, একঘেয়েমী চলে এসেছিল। ছুটিটা পেয়ে অনেক ভালো হলো। অনেক ভালো এনজয় করতেছি।যদিও বর্ষা কালে গ্রীস্মের ছুটি।

শাহজাহান উদ্দিন হেলাল বলেন, ছুটি খারাপ ছিলো না। কিন্তু পরীক্ষার চাপ না থাকলে আরো ভালো হতো।

এনিমেল হাজব্রেন্ড্রির ৩য় সেমিস্টারের ছাত্র মো. আমির হামজা বলেন, মোটামুটি কেটেছে। তবে বাবা মায়ের সাথে কয়েকদিন থাকতে পেরেছি, এটাই অনেক আনন্দের।বৃষ্টির কারণে বন্ধুদের সাথে আড্ডাটা অনেক কম হয়েছে।

একই সেমিস্টারের ছাত্র মেহেদী হাসান মুন্না বলেন, কেটেছে ভালোই, তবে মাত্র কয়েকদিনের জন্য ক্যাম্পাসে আসতে হয়েছে বলে কিছুটা খারাপ লাগছে।আম আর রোজা একসাথে উপভোগ করেছি এবার ছুটিতে।

পবিপ্রবি// এমআর, ২৯ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)// এইচএস