[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



নিলয় হত্যাকাণ্ড সরকারের ষড়যন্ত্র- খন্দকার মাহবুব হোসেন


প্রকাশিত: August 8, 2015 , 6:48 pm | বিভাগ: আপডেট,পলিটিক্স


লাইভ প্রতিবেদক: একের পর এক ব্লগার হত্যাকাণ্ডের পেছনে সরকারের ষড়যন্ত্র- এমন দাবি করেছেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা খন্দকার মাহবুব হোসেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে জঙ্গি রয়েছে বলে বহির্বিশ্বের কাছে তুলে ধরতেই আওয়ামী লীগ এসব হত্যাকাণ্ডে মদদ দিচ্ছে।

শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন খন্দকার মাহবুব হোসেন।

তিনি বলেন, “আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সামনে যেভাবে হত্যাকাণ্ড হয়েছে, এর পেছনে একটা ষড়যন্ত্র রয়েছে। তারা (সরকার) সারা পৃথিবীতে দেখাতে চাচ্ছে- বাংলাদেশ মৌলবাদী গোষ্ঠী আছে। তাদের নির্মূল করার জন্য এই সরকারের প্রয়োজন।

“আমি বিশ্বাস করি, সরকারের এটাও একটা রাজনৈতিক চাল। এই যে নিলয়কে হত্যা করা হয়েছে। এ ধরনের হত্যাকাণ্ড চলছে, আজও একটি হত্যাকাণ্ডের বিচারও হল না। কারণ উদঘাটনও হল না। এর অর্থ এই সরকার হত্যাকারীদের মদদ দিচ্ছে।”

তিনি বলেন,  “বর্তমান সরকারের স্লোগান হল- বাংলাদেশ সন্ত্রাসী দেশ, সন্ত্রাস, জঙ্গিসংগঠন ও মৌলবাদী মুক্ত করার জন্য তারাই একমাত্র হাতিয়ার।”

বিএনপির এই বুদ্ধিজীবী বলেন, “নিলয় হত্যার মধ্য দিয়ে তারা (সরকার) সারা পৃথিবীকে দেখাতে চাচ্ছে বাংলাদেশ মৌলবাদীর দেশ হয়ে গেছে।”

যুব জাগপা আয়োজিত ‘স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র রক্ষায় সমাজের করণীয়’ শীর্ষক ওই সভায় ব্লগার নিলয়ের জন্য শোক জানানো হয়।

খন্দকার মাহবুব বলেন, “বিশ্ববাসীর কাছে সরকারের মুখোশ আজ উন্মোচন হয়ে গেছে। আজ বাংলাদেশে মৌলবাদী ও জঙ্গিবাদের সমস্যা নয়, সমস্যা একটি রাজনৈতিক সমস্যা, নির্বাচনের সমস্যা।’’

সরকারের ‘পায়ের নিচে মাটি নেই’ মন্তব্য করে তিনি বলেন, “যে কোনো মুহূর্তে গণজাগরণে তাদের পতন ঘটবে।”

যুব জাগপার সভাপতি আলহাজ্ব ফায়জুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদউদ্দিনের পরিচালনায় প্রধান বক্তার বক্তব্যে জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান বলেছেন, স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র কারো দয়ার ধার নয়। ছাত্র ও যুবকেরা আবারো রক্ত দিয়ে হলেও স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করবেই। তিনি হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, বিলম্বে হলেও তারা বুঝতে পেরেছেন জয়বাংলা স্লোগান দিয়ে কারা সংখ্যালঘুদের সম্পত্তি দখল করছে। তিনি চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলেন, ধর্ম নিরপেক্ষতার নামে আওয়ামী ওয়ালারই ধর্মীয় সংখ্যালঘু ও জাতিসত্ত¡ার ৭০ শতাংশ সম্পদ গ্রাস করেছে। একমাত্র বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ ও ইনসাফ ভিত্তিক ধর্মীয় মূল্যবোধে বিশ্বাসী শক্তি হিন্দু-বৌদ্ধÑখ্রিস্টান-পাহাড়ী-বিহারীদের নিরাপত্তার গ্যারান্টি। তিনি হুশিয়ার করে বলেন, দাবি মানুন নির্বাচন দিন অন্যথায় যুব-ছাত্র-গণঅভ্যুত্থানে সহসাই জালিমশাহির মৃত্যুঘন্টা বেজে উঠবে।

আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জাগপার সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর রহমান, কেন্দ্রীয় নেতা মহিউদ্দিন বাবলু, এড. মজিবুর রহমান, সানাউল­াহ সানু, বেলায়েত হোসেন মোড়ল, যুব জাগপা নেতা সাইদুজ্জামান কবির, রিয়াজ রহমান, আরিফুল হক তুহিন, খোরশেদ আলম সুমন, নজরুল ইসলাম বাবলু, রাশেদুল ইসলাম রাশেদ, শফিকুল ইসলাম ফেরদৌস, জাগপা ছাত্রলীগের শ্যামল চন্দ্র সরকার, মিনহাজ প্রধান রাব্বি, আব্দুর রহমান ফারুকী, জোবায়ের রহমান প্রমুখ।

ঢাকা// ০৮ আগস্ট (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)// এইচএস