[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় ভালো করবেন যেভাবে


প্রকাশিত: October 6, 2015 , 1:11 pm | বিভাগ: আপডেট,ক্যাম্পাস,চট্টগ্রামের ক্যাম্পাস,পাবলিক ইউনিভার্সিটি


ijaj-live

মুজাহিদ আহমেদ ইজাজ : যারা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা দিতে চাও তাদের জন্য বলছি। কিভাবে পড়বে বা কোন বই পড়লে ভালো করবে বা আমিতো সেকেন্ড টাইম সিলেবাসতো চেঞ্জ হয়েছে কি করব? এই সব প্রশ্ন নিয়ে মাথা না ঘামানোই ভালো কারণ সেকেন্ড টাইমের ছেলে মেয়ে অনেক বেশী এটা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের মাথায় আছে। তারা এমন কিছু কখনোই করবে না যাতে দ্বিতীয়বার যারা পরীক্ষা দিচ্ছে তাদের ক্ষতি হয় অথবা প্রথমবার যারা পরীক্ষা দিচ্ছে তাদের ক্ষতি হয়।

এখনও সময় আছে। মন দিয়ে পড়লে সাফল্য তোমার নিশ্চিত। পড়বে বুঝলাম, পড়তে পড়তে বইয়ে আগুন ধরিয়ে দেবে আমাদের গ্রুপ এর কাভার পিকচার টার মতো কিন্তু প্রশ্ন হলো কিভাবে পড়বে ??? এর উত্তর নিচে দিলাম…

সবার আগে মোবাইল ফোনের সুইচ অফ করে নাও। হাতে একটা হাত ঘড়ি পড়ো অথবা টেবিলে একটা টেবিল ঘড়ি রাখো। এবার প্রথম দিন কিছু পড়া লাগবে না। একটা রুটিন করে ফেলো প্রথম দিন। এমনভাবে করো যেন একদিনে শুধু একটা বিষয়ই পড়বে। একদিনে অনেক বিষয় নিলে তালগোল পাকিয়ে ফেলবে এবং ঠিক মতো সময় মেইন্টেইন করতে পারবে না। আর যদি শুধু একটা বিষয় পড় এক দিনে তাহলে এরকম কোন সময় বন্টনের ঝামেলা নাই। বয়ফ্রেন্ড, গার্লফ্রেন্ড ভুলে যাও দেখবে অনেক টেনশন ফ্রি লাগছে।

সপ্তাহে ছয় দিনে আলাদা আলাদা সাবজেক্ট নেবে। সপ্তম দিন সারা সপ্তাহে কি কি পড়েছো সেগুলো হিসেব করবে। তাহলে দেখবে বিষ ভিত্তিক প্রশ্নের উপরে তোমাদের কনফিডেন্স লেভেল অনেক বেড়ে যাবে। আর পরীক্ষার সময় এই জিনিসটাই সব থেকে বেশী দরকারী।

এবারে আসি সিলেবাস সংক্রান্ত প্রশ্নে : যারা প্রথমবার পরীক্ষা দিচ্ছ তাদের জন্য বলছি, দ্বিতীয়বার যারা দেবে তাদেরটা একটু পরে বলছি। তোমরা বিগত বছরের সকল প্রশ্ন এমনভাবে পড়বে যেন প্রশ্ন করলেই পারো কোন অপশন না লাগে। কারণ তোমাদের এবং তোমাদের আগের ব্যাচের মধ্যে কমন টপিকগুলো থেকেই পরীক্ষা কমিটি প্রশ্ন করবে। তবে এমন ভাবাটা ঠিক হবে না যে বিগত সালের প্রশ্ন থেকে কমন পড়বে, বরং সুখের কথা হচ্ছে এবারের অধিকাংশ প্রশ্ন ( ৬০% এর মত আমার অনুমান ) বিগত বছরের প্রশ্নগুলোর
Mirror ( Same Category ) হবে তবে অবশ্যই তোমাদের সিলেবাস এবং আগের বছরের সিলেবাসের কমন টপিকগুলো থেকে। যে টপিকগুলো তোমাদের আছে মানে নতুন যুক্ত হয়েছে গত বছর ছিলো না, ওই টপিকগুলো খুব ভালো করে পড়ো কারণ ৪০% প্রশ্ন এখান থেকে করা হবে। যেহেতু তোমরা অলরেডি ২ বছর এই টপিকগুলো পড়েছ সেহেতু দ্বিতীয়বার যারা দেবে তাদের থেকে তোমরা ৪০% এগিয়ে গিয়েছ। এখন খুবই সিরিয়াস ব্যাপারটা বলব। মন দিয়ে শোন। তোমাদের এবং তোমাদের আগের বছরের যে টপিকগুলো কমন ওই টপিকগুলো তোমরা আগের বছরের বই থেকে পড়বে।

না হলে সিওর ধরা খাবে। কারণ তোমাদের বইয়ে এতটা ডিটেইলস দেওয়া হয় নাই গত বছরের বইয়ে যতটা ডিটেলস এ দেওয়া হয়েছে। তাই এক্ষেত্রে যারা দ্বিতীয়বার দেবে তারা তোমাদের থেকে ৬০% এগিয়ে (কারণ ৬০% প্রশ্ন বিগত সিলেবাস এবং বর্তমান সিলেবাসের কমন টপিক থেকে করা হবে)। তাই নিজেদের বই থেকে কমন টপিক পড়ার মতো ভুল না করে কচু গাছের সাথে গলায় দড়ি দাও।

এবারে আসি যারা দ্বিতীয়বার পরীক্ষা দেবে তাদের ব্যাপারে : তোমরা তোমাদের এবং বর্তমান সিলেবাসের কমন টপিকের উপরে তোমাদের বই পড়ে ১০০% রেডি থাকো। কারণ তোমাদের যতটা ডিটেইলস পড়ানো হয়েছে ততটা পড়তে হলে খুবই কষ্ট করতে হবে যারা প্রথমবার দেবে তাদের। আর যে টপিকগুলোর মিল নেই তোমাদের আছে কিন্তু বর্তমানের সিলেবাস থেকে বাদ পড়েছে ঐ টপিকগুলো বাদ দাও। কিন্তু মাথায় রাখো তোমাদের সিলেবাসে নেই কিন্তু বর্তমান সিলেবাসে আছে ওই টপিকগুলোতে তোমাদের দক্ষতার সীমা সর্বোচ্চ পর্যায়ে নিয়ে যেতে হবে। তাহলেই তোমরা প্রথমবার যারা দেবে তাদের থেকে বাশি ভালো করতে পারবে।

সবার জন্য : বিগত বছরের প্রশ্ন পত্র একদম ঠোঁটের আগায় রাখবে। কারণ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে অনেক রিপিট করে। আর মনে রেখো পাঠ্য বইয়ের উপরে কিছু নেই । গাইড কিছুই না । তার পরেও যারা গাইড পড়তে চাও , ( অবশ্যই পাঠ্য বই পড়ার পরে ) তারা ” পানকৌড়ী ” টা দেখতে পারো কারণ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য এটা বেস্ট । বিগত বছরের প্রত্যেকটা প্রশ্নের বিষয়ভিত্তিক ব্যখ্যা খুব সুন্দর করে দেওয়া আছে এইখানে ।
সব শেষে সবাইকে ধন্যবাদ এতবড় একটা পোস্ট পড়ার জন্য। শুভ কামনা থাকলো। আর এটাই আমার আপাতত শেষ পোস্ট । কারণ সামনে ইয়ার ফাইনাল এক মাস পরেই। সবাই দোআ করো আমার জন্য। আর কারো যদি কোন পার্সনাল জিজ্ঞাসা থাকে আমাকে ইনবক্স করতে পারো। আর যারা ঢাকার বাইরে থেকে আসবে থাকার যায়গার সমস্যা থাকলে আমাকে জানাতে পারো। আমার সাধ্যমতো সাহায্য করবো ইনশাআল্লাহ।

আর আমার ডিপার্টমেন্ট ” জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি ” । যারা যারা এখানে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাবে তাদের সাথে তো দেখা হবেই। আল্লাহ হাফেজ

 

মুজাহিদ আহমেদ ইজাজ
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

 

ঢাকা, ০৬ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//জেএন