[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



ইইউতে স্কলারশিপের সুযোগ বাড়ছে


প্রকাশিত: December 15, 2015 , 2:51 pm | বিভাগ: আদার ইন্সটিটিউট,আপডেট,স্কলারশিপ


লাইভ প্রতিবেদক: ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত (ইইউ) দেশসমূহের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো বাংলাদেশী শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের জন্য অধিক সংখ্যক ইরাসমাস প্লাস (Erasmus+) স্কলারশিপ ও ফেলোশিপ দিতে আগ্রহী।

মঙ্গলবার ইউজিসি অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ এবং বাংলাদেশী বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের মধ্যে একাডেমিক সহযোগিতার সম্ভাবনা শীর্ষক সেমিনারে বক্তারা এ অভিমত ব্যক্ত করেন।

এতে বলা হয়, ইইউ দেশসমূহ এবং বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে বিজ্ঞান, প্রযুক্তি ও ইনোভিশনে একাডেমিক ও রিসার্চ কোলাবোরেশন প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

সেমিনারে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের অ্যাম্বাস্যাডর ও দি হেড অব ডেলিগেশন Mr. Pierre Mayaudon।

ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর আবদুল মান্নান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। ইউরোপিয়ান কমিশনের হেড অব সেক্টর-এডুকেশন, অডিও ভিজুয়াল এবং কালচার এক্সিকিউটিভ এজেন্সীর Philippe Ruffio সেমিনারে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

Mr. Pierre Mayaudon তার বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে হলে জ্ঞানভিত্তিক সমাজ গঠন করতে হবে। এর জন্য প্রয়োজন উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহের মধ্যে রিসার্চ ও একাডেমিক কোলাবরেশন অধিকতর টেকসই করা।

ইউজিসি চেয়ারম্যান সভাপতির বক্তব্যে বলেন, ইইউভুক্ত দেশসমূহ এবং বাংলাদেশী উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহের মধ্যে সুসম্পর্ক স্থাপন ও একাডেমিক ও রিসার্চ কোলাবরেশন প্রতিষ্ঠা জরুরি।

উচ্চশিক্ষার উন্নয়ন ও আন্তর্জাতিকীকরণের জন্য একাডেমিক ও রিসার্চ কোলাবরেশনের প্রয়োজনীয়তা ক্রমশ বেড়েই চলেছে। তিনি ইইউ এর পক্ষ থেকে ইরাসমাস প্লাস স্কলারশিপ ও জিন মনেট কর্মকাণ্ডের প্রস্তাবটি বাংলাদেশী শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের জন্য ইতিবাচক ও অপার সম্ভাবনার উন্মোচন করবে বলেও উল্লেখ করেন।

ইউজিসি সদস্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ইউসুফ আলী মোল্লা, প্রফেসর ড. দিল আফরোজা বেগম, পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ও রেজিস্ট্রারবৃন্দ এবং ইউজিসি’র উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকা, ১৫ ডিসেম্বর//(ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম)//আরকে