[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



মেয়েরা দুঃস্বপ্ন বেশি দেখে ?


প্রকাশিত: January 22, 2016 , 9:07 pm | বিভাগ: হেলথ


লাইভ প্রতিবেদক: স্বপ্ন নিয়ে মানুষের বিস্ময়ের শেষ নেই। স্বপ্নের মধ্যে কত কী দেখি আমরা। আর তাই এটি নিয়ে জানার আগ্রহ মানুষের অনেক। মেয়েরা কি দুঃস্বপ্ন বেশি দেখে? বা সব স্বপ্ন কি ব্যাখ্যা করা যায়? – এ রকম হাজারও প্রশ্ন হয়তো আমাদের মাথায় ঘুরপাক খায়। স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট ওয়েবএমডির একটি জরিপে জানানো হয়েছে স্বপ্নবিষয়ক কিছু বিস্ময়কর তথ্য।

 ১. ঘরের গন্ধের সঙ্গে স্বপ্নের সম্পর্ক : ঘরজুড়ে সুগন্ধ ছড়িয়ে থাকলে ভালো স্বপ্ন দেখার সম্ভাবনাই বেশি। আর যদি দুর্গন্ধ থাকে তাহলে সেটা দুঃস্বপ্ন ডেকে আনতে পারে। ঘরের গন্ধের সঙ্গে স্বপ্নের গভীর সম্পর্ক আছে।

২. স্মৃতিশক্তি ধরে রাখতে সাহায্য করে: অনেক গবেষকরা বিশ্বাস করেন, স্বপ্ন দেখার মানে হচ্ছে ঘুমকে বিদ্রূপ করা। অবশ্য ভিন্নমতও আছে। অনেক গবেষকই মনে করেন, স্বপ্ন স্মৃতি ধরে রাখতে সাহায্য করে। সমস্যার সমাধান বা আবেগ সামলাতেও সাহায্য করে স্বপ্ন।

৩. ওষুধের প্রতিক্রিয়া: কিছু কিছু ওষুধ আছে যা স্বপ্ন নির্ধারণ করে দেয়। এসব ওষুধ মানুষের স্নায়ুর ওপর প্রভাব ফেলে। ফলে মানুষ দুঃস্বপ্ন দেখে। অ্যান্টিডিপ্রেসেনাটস, মাদক এবং ঘুমের ওষুধ এ ধরনের সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে।

 ৪. মেয়েরা দুঃস্বপ্ন বেশি দেখে:  একাধিক জরিপ ও গবেষণায় এই তথ্য পাওয়া গেছে। নারী-পুরুষ উভয়ের ওপরই এসব জরিপ চালানো হয়। যেখানে বেশির ভাগ নারীই দাবি করেছেন, তারা দুঃস্বপ্ন বেশি দেখেন। এর কোনো কারণ গবেষকরা খুঁজে পাননি। তবে তাঁদের ভাষ্যমতে, নারীদের মধ্যে একই ধরনের স্বপ্ন বারবার দেখার প্রবণতা রয়েছে। আর সে কারণেই দুঃস্বপ্ন তারা ভুলতে পারেন না।

 ৫. স্বপ্নের ব্যাখ্যা: কিছু কিছু স্বপ্ন আছে যেগুলোর কোনো ব্যখ্যা দরকার হয় না। কারণ সেগুলো আমাদের অবচেতন মনের সৃষ্টি। আপনি হয়তো কাউকে অনুভব করছেন বা কিছু নিয়ে দুশ্চিন্তা করছেন- এই বিষয়গুলো হয়তো ঘুমের মধ্যে সোজাসুজিভাবে প্রকাশিত হয় স্বপ্নের মাধ্যমে। মাঝে মাঝে দৈনন্দিন জীবনে চাপের কারণেও এসব দুঃস্বপ্ন দেখে মানুষ। তবে কিছু স্বপ্ন আছে যেগুলো আমাদের বোধগম্য হয় না। সব স্বপ্ন ব্যাখ্যা করা সম্ভব হয় না।

 

৬. স্বপ্ন কি সব সময় মনে থাকে?

বেশির ভাগ মানুষ ঘুমের মধ্যে দেখা স্বপ্নগুলো মনে রাখতে পারেন না। কারণ তা অবচেতন মনের সৃষ্টি। স্বপ্নের কথা মনে রাখতে হলে বিছানার পাশেই খাতা-কলম রাখুন। ঘুম ভাঙার সঙ্গে সঙ্গেই চট করে তা লিখে ফেলুন।

 

৭. স্বপ্নের সঙ্গে সংস্কৃতির যোগ: একই সংস্কৃতিতে বাস করা বা বেড়ে ওঠা মানুষদের স্বপ্নের মধ্যে মিল থাকে। কিন্তু তারপরও তাতে বৈচিত্র্য থাকে।

 

৮. সবাই কি স্বপ্ন দেখে?

হ্যাঁ। কমবেশি সবাই ঘুমের মধ্যে স্বপ্ন দেখে। কিন্তু বেশির ভাগ মানুষই স্বপ্নের কথা মনে রাখতে পারে না। রাতের ঘুমে যেসব স্বপ্ন দেখা হয়, তা সকালের দিকেই আমাদের স্মৃতি থেকে মুছে যায়।

 

৯. জন্মান্ধ মানুষ স্বপ্ন দেখে না: বিভিন্ন গবেষণায় এটা নিশ্চিত করা হয়েছে, যারা জন্মান্ধ তারা কোনো দৃশ্যমান স্বপ্ন দেখেন না। এমনকি যারা শৈশবেই অন্ধ হয়ে গেছেন, তারাও দৃশ্যমান তেমন কিছু স্বপ্নে দেখতে পান না। তবে যারা শৈশব-কৈশোর পেরিয়ে চোখে দেখার ক্ষমতা হারিয়েছেন, তারা দৃশ্যমান স্বপ্ন দেখেন।

 

ঢাকা//২২ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)// কেএম