[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



বড় বোন থাকার ১৫টি মজার দিক


প্রকাশিত: April 22, 2016 , 11:17 pm | বিভাগ: আপডেট,ইয়াং স্টাইল


sibling
লাইভ প্রতিবেদক: বড় ভাই-বোনের সাথে একটু খুঁনসুটি হবে না? তা কি হয়! যখন ভাইবোনের সঙ্গে কোন বিষয় নিয়ে ঝগড়া বেঁধে যায় তখন অনেকেই মনে করেন বাবা মায়ের একমাত্র সন্তান হওয়াটাই মনে হয় ভালো ছিল। কিন্তু আসলেই কি তাই?

যারা বাবা মায়ের একমাত্র সন্তান,  তারা কিন্তু বলবেন অন্য কথা। ভাই-বোন থাকলে বিশেষ করে বড় ভাইবোন থাকলে অনেক ধরনের সুযোগ সুবিধা পাওয়া যায়। অসুবিধা যে নেই তা নয়। কিন্তু সুবিধাই অনেক বেশি। বিশেষ করে বড় একটি বোন থাকলে এমন অনেক ধরনের বিষয়ে সাহায্য পাবেন যা অন্য কার কাছ থেকে পাওয়া সম্ভব নয়। জানতে চান একজন বড় বোন থাকার মজার দিকগুলি?

১) বড় বোন থেকে জীবন সম্পর্কে ভালো উপদেশ পাওয়া যায়
যখনই আপনি জীবনের কোন ক্ষেত্রে আটকে যাবেন,  বড় বোন কিন্তু বিনা স্বার্থে আপনাকে ভালো কিছু উপদেশ দিতে পারবেন। আপনার ছোটবেলার স্কুল ভীতি থেকে শুরু করে প্রথম প্রেমের সম্পর্ক সম্বন্ধেও ভালো কিছু উপদেশ পাবেন বড় বোনটির কাছ থেকে।

২) আপনি সব সময় সেকেন্ড প্লেয়ার হবেন খেলায়
অসুবিধার কথা ভুলে যাইনি একেবারেই। কারণ বড় বোন থাকলে কখনই খেলার সময় প্রথম প্লেয়ার হতে পারবেন না আপনি। তিনিই বাগিয়ে নেবেন সেই পদটি। যদিও বড় বোনেরা ইচ্ছা করেই পদ ছেড়ে দেন ছোটো ভাই বোনের জন্য।

৩) অনেক সিদ্ধান্তই আপনার বড় বোন নেবেন
আরও একটি অসুবিধায় পড়া হয় বড় বোন থাকলে, সেটি হল আপনি যত বড়ই হোন না, কেন সিন্ধান্ত নেওয়ার সময় বড় বোনটি সে কাজটি আপনাকে কমই করতে দেবেন।

৪) আপনার দোষের ভাগীদারও আপনার বড় বোন হবেন
বড় বোন থাকার অনেক সুবিধাও রয়েছে। আপনার দোষের ভাগীদার কিন্তু তিনিও হবেন। তাকেই কথা শুনতে হবে, ‘বড় বোন হয়ে ছোটকে কিছু শেখাতে পার না’।

৫) রুম এবং জিনিসপত্র ভাগাভাগির যন্ত্রণায় পড়তে হবে আপনাকে
অসুবিধার আরেক অংশ সব কিছু শেয়ার করার যন্ত্রণা। বিছানা থেকে শুরু করে সব কিছু শেয়ার করতে হবে বড় বোনটির সঙ্গে।

৬) আপনাদের পরিবার সম্পর্কে তিনি বেশ ভালোই জানেন
তবে সুবিধা হল পরিবার সম্পর্কে সব ধরনের অভিযোগ তার কাছে করতে পারবেন, যা অন্য কারও কাছে করতে পারবেন না। কারণ তিনিও জানেন আপনাদের পরিবারের অবস্থা সম্পর্কে।

৭) আপনার বড় বোনটি সব সময় আপনার প্রতি বিশ্বস্ত থাকবেন
যা অকাজ ঘটিয়েছেন সব বিনা দ্বিধায় বড় বোনের কাছে বলে দেওয়া যায়। কারণ আপনি নিজেও জানেন বোনটি কখনই আপনার গোপন তথ্য কারো কাছে ফাঁস করবেন না।

৮) আপনার জীবনের অনেক ভীতি দূর করতে তিনিই সাহায্য করতে পারবেন
প্রথম স্কুলে যাওয়ার ভয় থেকে শুরু করে অচেনা একজনের সঙ্গে পরিচয়ের ভয় সব কিছুই বুঝিয়ে দূর করতে পারবেন আপনার বড় বোনটি। কারণ অভিভাবকের চাইতে আপনার শিশু মন বড় বোনের দিকেই বেশি ঝুঁকে থাকে।

৯) আপনার হয়ে অভিভাবককে রাজি করানোর কাজটিও বড় বোন করে দেবেন
কোথাও ঘুরতে যাবেন, কিংবা পরীক্ষায় খারাপ করেছেন? চিন্তা নেই বড় বোনকে গিয়ে একটু বলুন। তিনি ঠিকই আপনার অভিভাবককে বুঝিয়ে রাজি করিয়ে ফেলতে পারবেন আপনার ঘুরতে যাওয়া অথবা পরীক্ষার খাতায় সাইন করার ব্যাপারটি।

১০) যে কোন প্রয়োজনে বড় বোনের কাছে হাত পাততে লজ্জা লাগবে না
আপনার হাত খরচের টাকা শেষ হয়ে গেলেও চিন্তা নেই। যা অন্য কারও কাছে করতে পারবেন না তা ঠিকই বড় বোনের কাছে করতে পারবেন। ধার নেয়া হলেও কিন্তু তা আর শোধ দিতে হয় না।

১১) আপনার ভুল শোধরাতে সব সময় সাহায্য করবেন বড় বোনটি
আপনার সব ভুলগুলো তিনি খুব ভালো করে নিজের অভিজ্ঞতা দিয়ে বুঝিয়ে শোধরাতে পারবেন। কারণ তিনি নিজে পার করে এসেছেন বলে আপনার সব কিছুই বেশ ভালো বুঝতে পারবেন।

১২) আপনার বড় বোন আপনার প্রথম আদর্শ
সাধারণত একজন মেয়ের কাছে তার বড় বোনটিই প্রথম আদর্শ হয়ে থাকে। মেয়েরা প্রথমে তার বড় বোনটিকে দেখেই শিখতে থাকেন মেকআপ থেকে পড়ালেখা ও সবকিছু।

১৩) বড় বোনের সকল জিনিস জন্মসূত্রে আপনার
আরও সুবিধা চান? তাহলে জেনে নিন জন্মসূত্রে আপনি ছোট বলে বড় বোনের সব কিছুই আপনার সম্পত্তি। এই জিনিসটি নিজে একা থাকলে বা নিজে বড় বোন হলে পাওয়া যায় না।

১৪) জীবনের অনেক ব্যাপারে তিনি বিনা দ্বিধায় আপনাকে সাহায্য করবেন
কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না, সব চাইতে বেশি সাহায্য পাবেন নিজের বোনটির কাছে। এমনকি আপনাদের ছোটখাট ঝগড়ার মাধ্যমেও কিন্তু তিনি আপনাকে পৃথিবীতে বেঁচে থাকলে যুদ্ধ করতে হয় তা শিখিয়ে দিচ্ছেন।

১৫) তিনি আপনার প্রথম এবং সব চাইতে ভালো বন্ধু
আপনি মানুন আর নাই মানুন, একজন বড় বোন আপনার সর্বপ্রথম বন্ধু এবং সব চাইতে ভালো বন্ধুটির পদে বসে আছেন। কারণ তিনি মৃত্যু পর্যন্ত আপনার সঙ্গে যেমন আছেন তেমনই থাকবেন।

ঢাকা, ২২ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম) //এফআর