[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



ঢাবির আইবিএ ভর্তি : এক্সট্রা সময়ে প্রস্তুতি নেবেন যেভাবে


প্রকাশিত: June 13, 2016 , 1:25 am | বিভাগ: আপডেট,স্টাডি


shahriar-live

শাহরিয়ার আহমেদ শাদিব : আপনারা সবাই অপেক্ষা করছেন জুনের সার্কুলারের জন্য। আইবিএর ট্র্যাডিশন হচ্ছে এক্সামের কমপক্ষে এক মাস আগে সার্কুলার দেয় । এখন পর্যন্ত যেহেতু সার্কুলার দেয়নি আর ওদিকে ২০ জুনের মধ্যে ঢাবিও বন্ধ হয়ে যাবে সো বলা যায় পরীক্ষা ঈদের পর ছাড়া হচ্ছে না। আপনারা জুলাইয়ের ১৫ তারিখ ডেডলাইন ধরে আগাতে পারেন।

ভাই আপনি কি শিউর ? এই খবর কই পাইলেন ? এই টাইপের Unnecessary কথাবার্তা কাইন্ডলী কেউ বলবেন না। যার মনে চায় মানবেন, যার মনে চায় মানবেন না। It’s up to u ! তারপরও বলে রাখি This is IBA and so be prepared for the surprises.

এখন যেহেতু এক্সট্রা সময় পাচ্ছেন সো এটাকে কাজে লাগান। এই এক্সট্রা টাইমের কারণে আপনাদের কম্পিটিটর বাড়বে শিউর থাকেন। সো প্রিপারেশনে ঢিলামি দিয়েন না।

১। অবশ্যই ১টা রুটিন করে ফেলুন । আপনার পুরো মাসের শিডিউল যেন এতে ইঙ্কলুডেড থাকে।

২। আগের বছরের প্রশ্ন বারবার সলভ করুন এবং ভুলগুলোর একটা নোট নিয়ে নেন। শেষ মুহূর্তে কাজে লাগবে। মিনিমাম তিন বার যেন রিভিশন হয় খেয়াল রাখবেন।

৩। গ্রামারের জন্য Cliff’s Tofel আবারো ভালোভাবে একবার রিভাইস করুন। এই বইয়ের শেষের দিকে যে টেস্টগুলো আছে সেগুলো বারবার করুন।

৪। গ্রামারের ফারদার প্র্যাকটিসের জন্য Baroon’s SAT দেখতে পারেন। এখান থেকে Error Detection & Sentence Correction গুলো ভালোভাবে করুন।

৫। আইবিএতে Vocab এর গুরুত্ব অনেক খানি কমে গেছে। সো এর পিছনে অনেক বেশী সময় নষ্ট না করাই ভালো। এখন পর্যন্ত যা পড়েছেন সেগুলোই রিভাইস করুন। এছাড়া ইংলিশ নিউজ পেপার বেশী বেশী করে পড়ুন। বিশেষ করে New York Times, Guardian, Economist থেকে ডেইলী ৩-৪ টি করে আর্টিকেল পড়ুন।

৫। লিসেনিং এর প্রতি বিশেষ দৃষ্টি দিন। BBC শুনুন, BBC শুনুন, BBC শুনুন !

৬। ম্যাথস এর জন্য আগের বছরের প্রশ্ন সলভ করার কোন বিকল্প নেই। এমবিএর প্রশ্ন সলভ করার পর বিবিএর প্রশ্নগুলো ধরতে পারেন। তারপরও করতে চাইলে Official Gmat এবং Nova’s GMAT math bible দেখুন। যে ম্যাথগুলো ভুল করছেন সেগুলোর ১টা নোটস নিয়ে নিন।

৭। এনালাইটিক্যালের জন্য GRE Big Book এর কোন বিকল্প এখনও তৈরী হয়নি। সো ওটাই বারবার করুন। ১৫ টা টেস্ট ভালোভাবে করলেই হবে ইনশাআল্লাহ। তবে আগের বছরের প্রশ্ন সলভ করতে ভুলবেন না।

৮। রাইটিংয়ের জন্য র‍্যান্ডম টপিক ধরে ধরে লিখুন। ধরেন, সারাদিনের আলোচিত কোন ইস্যুর উপর আপনি ৮-১০ লাইনে ফেসবুকে কিছু লিখে ফেললেন। কমেন্টগুলো ইংলিশে করুন।

৯। বিভিন্ন জায়গায় মডেল টেস্ট দিন। নিজেকে এভালুয়েট করুন। এডমিশন টেস্টে আপনি কত ভালো পারেন এর সাথে সাথে আপনি অন্যের চেয়ে কতটুকু ভালো এটা বোঝাটাও জরুরী।

১০। টাইম ম্যানেজম্যান্টে বিশেষ নজর দিন। মনে রাখবেন আপনাকে ১০০% পেতে হবে না। প্রতি সেকশনে ৬০% করে পেলেই হবে। সো এই ফাইন টিউনিংটা মডেল টেস্টের সময় করে ফেলুন।

হ্যাপি প্রিপেয়ারিং…

শাহরিয়ার আহমেদ শাদিব
শিক্ষার্থী, অাইবিএ
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

ঢাকা, ১৩ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//জেএন