[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



ভালো খেলতে পারলে আত্মবিশ্বাস বাড়ে: ফিদে মাস্টার


প্রকাশিত: August 2, 2016 , 7:19 pm | বিভাগ: ইন্টারভিউ,মত


Fahad-2
বেনজির আবরার: দুবাইয়ে দারুণ এক টুর্ণামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়ে ফাহাদ রহমান জিতেছে ২ হাজার ডলার প্রাইজমানি। দুবাইয়ের অভিজ্ঞতা নিয়ে ফেরার পরই দেশে দাবা ফেস্টিভ্যালে অংশ নিয়ে হয়েছে রানার-আপ। ছোট ক্যারিয়ারে তার সাফল্য, অনুভূতি এবং ট্রেনিং নিয়ে ক্যাম্পাসলাইভের প্রতিনিধি বেনজির আবরারের সঙ্গে কথা বলেছে দেশের এ সর্বকনিষ্ঠ ফিদে মাস্টার।

ক্যাম্পাসলাইভ : দুবাই জিতে আসার পরপরই আবার মোহামেডান
ক্লাবে অনুষ্ঠিত চেস ফেস্টিভ্যালে অংশ নিলে, কেমন অনুভূতি?

ফাহাদ রহমান : খুব মজা হয়েছে এই ফেস্টিভ্যালে। আমি রানার-আপ হয়েছি। এটা অনেক বড় অর্জন। এরকম খেলতে পারলে নিজের আত্মবিশ্বাস অনেক বাড়ে।

ক্যাম্পাসলাইভ : দুবাইয়ের অভিজ্ঞতা তো দুর্দান্ত, কি মনে হয়?

ফাহাদ : ওই ২০১৩ সালে থাইল্যান্ডে যেমন মজা পেয়েছিলাম, এই
টুর্ণামেন্টও উপভোগ করেছি। মনে কোনো রকম ভয় ছিল না, চাপ না নিয়ে
স্বাভাবিক খেলা খেলে গেছি শুরু থেকে। এটাই প্লাস পয়েন্ট এ টুর্ণামেন্টে।

fahad

ক্যাম্পাসলাইভ: তোমার এই ছোট্ট ক্যারিয়ারে অনেক শিরোপা আছে। এর মধ্যে কোনটা সেরা অর্জন?

ফাহাদ : দুবাইয়ের এই টুর্ণামেন্ট জেতাটা অনেক দিক থেকে কঠিন
ছিল। প্রথমত এটা আমার জন্য একদম নতুন টুর্ণামেন্ট, এ সম্পর্কে কোনো
ধারণাই ছিল না। তাছাড়া অনেক দাবাড়ু অংশ নিয়েছিল, যারা আসলেই ভালো খেলে। যেমন ইউক্রেনের দাবাড়ুটা ছিল টুর্ণামেন্টে শীর্ষ বাছাই, স্বাভাবিকভাবে সে
ফেভারিট ছিল। তার সঙ্গে ড্র করেছি আমি। আমার চেয়ে বেশি রেটিংধারী ভারতীয় দাবাড়ুর সঙ্গেও ড্র করেছি। একটা হেরে গেলে কঠিন হয়ে যেত ব্যাপারটা। তাই এটা আমার ক্যারিয়ারের সেরা শিরোপা। ফিদেমাস্টার হওয়ার কারণে দুই বছর আগে
থাইল্যান্ডের শিরোপাটা স্মরণীয় হয়ে থাকবে আমার ক্যারিয়ারে।

ক্যাম্পাসলাইভ: লেখাপড়ার পাশাপাশি দাবা চর্চা চালিয়ে যেতে কি সমস্যা হয়?

ফাহাদ : না-না। দুটিই একসঙ্গে চালিয়ে যাচ্ছি ছোটবেলা থেকে। আমি জানি, দুটিই করে যেতে হবে। কারণ দাবার উন্নতির জন্য লেখাপড়াটাও লাগবে।
ক্যাম্পাসলাইভ: স্কুলে নিশ্চয়ই দাবাড়ু হিসেবে বেশ নাম-ডাক হয়েছে। সবাই চেনে। বন্ধুদের কি দাবা শেখাও?

ফাহাদ : আমি কেবল সপ্তম শ্রেণিতে পড়ি। এখনো দাবা শেখানোর সময় হয়নি। নিজের দাবা শিক্ষাই অনেক বাকি। দাবাড়ু হওয়ার সুবাদে সবাই চেনে, স্যারেরা একটু অন্য চোখে দেখে আর কি।

ক্যাম্পাসলাইভ : দাবা শিক্ষা তো চলছে, সেটা কি গ্র্যান্ডমাস্টার নিয়াজ মোরশেদের কাছে?

ফাহাদ : নিয়াজ অ্যাংকেলের কাছে ট্রেনিংয়ে আমার উন্নতি হচ্ছে, এটা
বুঝতে পারছি। মাসে তিনি ৮টি ক্লাস নেন। এখন ওপেনিংয়ের ওপর ট্রেনিং চলছে। ওপেনিংয়ের বিভিন্ন চালের সুবিধা-অসুবিধা দেখিয়ে দিচ্ছেন।

ক্যাম্পাসলাইভ : পরবর্তী লক্ষ্য কী?

ফাহাদ : আইএম নর্ম অর্জনের চেষ্টা করা। আন্তর্জাতিক টুর্ণামেন্ট যত
বেশি খেলব তত সুযোগ আসবে। আগামী কিছুদিনের মধ্যে অন্তত একটি নর্ম অর্জন করতে হবে।

ক্যাম্পাসলাইভ: ফাহাদ তোমাকে অসংখ্য ধন্যবাদ কষ্ট করে সময় দেয়ার জন্যে।

ফাহাদ: আপনাকেও ধন্যবাদ, ভালো থাকবেন।

 

ঢাকা, ০২ আগস্ট/(ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এফআর