[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



শাবির হল বন্ধ করে সেই শিক্ষককে নিয়ে অবকাশে ভিসি!


প্রকাশিত: September 4, 2016 , 10:14 am | বিভাগ: আপডেট,পাবলিক ইউনিভার্সিটি,সিলেটের ক্যাম্পাস


Shabi-VC

শাবি লাইভ : শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের হল বন্ধ করে দিয়ে অবকাশ যাপনে চলে গেছেন ভিসি প্রফেসর ড. আমিনুল হক ভূইয়া। তার সফরসঙ্গী হয়েছেন বিতর্কিত শিক্ষক সামিউল ইসলাম রাজন। যার বিরুদ্ধে ছাত্রাবস্থায় শিবির করার অভিযোগ রয়েছে। আওয়ামী শিক্ষকদের ছত্রছায়ায় যিনি বর্তমানে জামায়াতের পৃষ্ঠপোষকতা করছেন বলে শিক্ষকদের অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক হিন্দু ছাত্ররে সঙ্গে ধর্মীয় বৈষম্য করে নম্বর কম দিয়েছেন বলেও অভিযোগ রয়েছে। এনিয়ে কয়েক সপ্তাহ আগে ক্যাম্পাসে তোলপাড় হয়েছে। এ অবস্থায় তাকে নিয়ে বিদেশ যাওয়ায় সমালোচনার মুখে পড়েছেন ভিসি।

এদিকে বিধি না মেনে সম্পূর্ণ একক সিদ্ধান্তে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ করে দিয়ে এভাবে শাবি ভিসির বিদেশ চলে যাওয়া নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়েছে। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ তাদের বিপদে ফেলে ভিসি চলে গেছেন বিদেশে। শিক্ষার্থীদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ভিসির কোন মাথা ব্যাথা নেই বলে তারা অভিযোগ করেন।

শাবির শিক্ষকরাও ভিসির এভাবে চলে যাওয়াকে সমালোচনার চোখে দেখছেন।

জানা গেছে, সংঘর্ষের আশংকায় শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয় ১ সেপ্টেম্বর। হঠাৎ করে এমন সিদ্ধান্ত নিয়ে শাবছাত্রদের সঙ্গে চরম দুর্ব্যবহার করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। হলের বিদ্যুৎ, পানি বন্ধ করে দিয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অমানবিক আচরণ করা হয়।

এদিকে শাবি ভিসি প্রফেসর ড. আমিনুল হক শনিবার সকালের ফ্লাইটে মায়ানমার চলে যান। এটা তার ব্যাক্তিগত সফর। সঙ্গে নিয়ে গেছেন বিতর্কিত শিক্ষক সামিউল ইসলামকে।

এ বিষয়ে যোগাযোগকালে রেজিস্ট্রার মো. ইশফাকুল হোসেন বলেন, ভিসি মহোদয় কবে যাচ্ছেন তা আমার খেয়াল নেই। তবে তিনি ব্যক্তিগত ভ্রমনে মায়ানমার যাচ্ছেন। এসময়টাতে কোষাধ্যক্ষ ভারপ্রাপ্ত ভিসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। ভিসির সফরসঙ্গী হিসেবে কে কে আছেন সেটা তিনি জানাতে পারেননি।

যোগাযোগ করা হলে কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. ইলিয়াস উদ্দিন বিশ্বাস বলেন, তিনি শনিবার থেকে দশ তারিখ পর্যন্ত ভারপ্রাপ্ত ভিসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। ভিসি ঢাকা চলে যাচ্ছেন বলে একটা চিঠি পেয়েছেন তিনি।

এভাবে অযৌক্তিকভাবে একক সিদ্ধান্তে হল বন্ধ করে ভিসি অবকাশযাপনকে স্বাভাবিকভাবে দেখছেন না সাধারণ শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

শাবি শিক্ষক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক, সাবেক সিন্ডিকেট সদস্য এসোসিয়েট প্রফেসর মো. ফারুক উদ্দিন ক্যাম্পাসলাইভকে বলেন, শাবি শিক্ষার্থীদের বিপাকে ফেলে ভিসির এমন অবকাশযাপন কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না।

এছাড়া বিতর্কিত শিক্ষককে নিয়ে বিদেশ ভ্রমণের বিষয়ে তিনি বলেন, ওই শিক্ষকের সঙ্গে ভিসির এই প্রেমের সম্পর্কই প্রমাণ করে সাম্প্রদায়িকতা পুরষ্কারজনিত একটি কাজ। এটা আরও প্রমাণ করে ভিসির একাডেমিক কাজ মুখ্য নয় ভোগ বিলাসের রাজ্যই হচ্ছে শাবি ক্যাম্পাস।

শাবি//এনডি, ০৪ সেপ্টেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//জেএন