[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



বেপরোয়া কিশোরের কাণ্ড!


প্রকাশিত: September 22, 2016 , 9:50 am | বিভাগ: এক্সক্লুসিভ,স্কুল


mogdo

আশরাফুল ইসলাম, ফরিদপুর : বেপরোয়া কিশোর। কোন কথা বার্তা নেই। নিজের মতোই চলাফেরা। যখন যা ইচ্ছা তাই চাইতো। বাবা-মাসহ কারো কথার তোয়াক্ষা করে না। নিজের খেয়াল-খুশিকেই হর-হামেশা প্রাধান্য তার। পড়াশোনাতেও মনযোগী নয়। তার বন্ধুত্ব বখাটেদের সঙ্গে। কিন্তু তার চেহারায় তা বুঝা যায় না। শান্ত আর নিরীহ কিশোরের অবয়ব। কিন্তু চাল-চলন ধুর্ত প্রকৃতির!!!

সমস্যা শুনতে একেবারেই নারাজ। তার সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। বাবা-মাকে মানতে হত। বায়না ধরলে মানতে বাধ্য। না মানলে ঘরের বিভিন্ন জিনিষপত্র ভেঙ্গে করে খান খান করে দেয়। তার পুরো নাম ফারদিন হুদা মুগ্ধ।

জানা গেছে, এ বছর ফরিদপুর জিলা স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে সে। প্রতিবেশীরা জানান, যখন যা চায় তখন তাই পেয়ে যাওয়ায় ছেলেটি বেপরোয়া হয়ে যায়।
Mugdha-and-Rafiqul-Huda+cl
একবার বায়না ধরে নতুন মোটরসাইকেল কিনে না দেয়ার। কোন কথা নেই সেটাই দিতে হবে। কাল হয়ে দাড়ালো মোটর সাইকেল কিনে না দেয়া। একারণে সে বেঁকে বসে। বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয় মুগ্ধ। সেই আগুনে দগ্ধ বাবার মৃত্যু হয়েছে বুধবার। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে মারা যান এটিএম রফিকুল হুদা (৪৮)। এই ঘটনায় বুধবার বিকেলে ফরিদপুর কোতোয়ালি থানায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে।

রফিকুলের বোনের স্বামী আকরাম উদ্দিন আহমদ ক্যাম্পাসলাইভকে জানান, ফারদিন চলতি বছর এসএসসি পাস করে। এর পরই সে তার বাবার কাছে নতুন মডেলের একটি মোটরসাইকেল কেনার বায়না ধরেছিল। বাবা-মা তার সে বায়না রক্ষা করে একটি মোটরসাইকেল কিনেও দেন। কিন্তু সে আরও দামি ও নতুন মডেলের মোটরসাইকেল কিনে দিতে চাপ সৃষ্টি করে।
mogdo+cl+bd

বাবা তাতে সায় না দেওয়ায় তার ওপর ক্ষুব্ধ হয় মুগ্ধ। একপর্যায়ে ঘরের মধ্যে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। সেই আগুনে রফিকুলের শরীরের বেশির ভাগ অংশই পুড়ে গিয়েছিল। এতে সিলভিয়ার পায়ের কিছু অংশ ও ফারদিনের পায়ের সামান্য অংশ পুড়ে যায়।

আকরাম উদ্দিন বলেন, ঘটনার পর এলাকাবাসী দগ্ধ তিনজনকেই উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। রফিকুলের অবস্থার অবনতি হওয়ায় ১৬ সেপ্টেম্বর তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়।

রফিকুল হুদার ভাই এ টি এম সিরাজুল হুদা তার ভাইয়ের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে ক্যাম্পাসলাইভকে জানান, বুধবার ভোর ৪টার দিকে রফিকুল মারা যান।

ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার ওসি মো. নাজিম উদ্দিন বলেন, এই ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে নিহতের ভগ্নিপতি আকরাম উদ্দিন বাদী হয়ে ফারদিন হুদা মুগ্ধকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেছেন। আসামিকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার চেষ্টা চলছে বলে জানা গেছে।

নিহতের ভাই সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার এ টি এম শামসুল হুদাসহ পারিবারিক সিদ্ধান্ত অনুযায়ী নিহত রফিকুল হুদা ওরফে পিন্টুকে ঢাকার আজিমপুর কবরস্থানে দাফন করা হবে।

ঢাকা, ২২ সেপ্টেম্বর, (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এএম