[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



ঢাবির ‘গ’ ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নে এত ভুল!


প্রকাশিত: October 1, 2016 , 11:32 am | বিভাগ: আপডেট,এডমিশন,পাবলিক ইউনিভার্সিটি


du-exam

ঢাবি লাইভ : দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপিঠ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিটের প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষায় ভুলে ভরা প্রশ্নপত্র দেয়া হয়েছে। এনিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। শিক্ষার্থীরাও মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন।

প্রশ্নপত্রের ১টি সেটেই অন্তত ১৪টি ভুল পাওয়া গেছে। অন্য সেটে ১০০টি প্রশ্নের জায়গায় ৯৯টি প্রশ্ন দেয়া হয়েছে। এতে চরম হয়রানির শিকার হয়েছেন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা। পরীক্ষা কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা শিক্ষকরাও চরম বিব্রতকর অবস্থায় পড়েন।

‘গ’ ইউনিটে মোট আসন রয়েছে ১ হাজার ২৫০টি। এ বছর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ভর্তি পরীক্ষায় ডিজিটাল জালিয়াতি প্রতিরোধ করতে সক্ষম হলেও প্রশ্নপত্রে অসংখ্য ভুল সেই অর্জনকে ম্লান করে দিয়েছে।

শুক্রবার বেলা ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও ক্যাম্পাসের বাইরের ৫৫টি কেন্দ্রে ৪২ হাজার ১৪৭ জন শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে।

এ বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় কোনো সেট কোড দেয়া হয়নি। ফলে কে কোন সেটে পরীক্ষা দিয়েছে সেটি উল্লেখ করার সুযোগ নেই। তবে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে প্রশ্ন সংগ্রহ করে এতে কয়েক ধরনের ভুল পাওয়া গেছে। এর মধ্যে একটি প্রশ্নের ২ নম্বর পৃষ্ঠায় ইংরেজি বিষয়ের প্রশ্নে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে- ৬ থেকে ১২নং প্রশ্নের শূন্যস্থান পূরণের জন্য। অথচ সেখানে প্রশ্ন দেয়া হয়েছে ৬ থেকে ১১ পর্যন্ত। একইভাবে ৩নং পৃষ্ঠায় নির্দেশনা দেয়া হয়েছে ১৩ থেকে ১৭নং প্রশ্নের শূন্যস্থানে সঠিক ‘প্রিপজিশন’ বসাতে। অথচ সেখানে প্রশ্ন রয়েছে ১২ থেকে ১৮ পর্যন্ত। তার ঠিক পরেই ২২ থেকে ২৩ নম্বর প্রশ্ন থেকে সঠিক বাক্য নির্ধারণের জন্য বলা হয়েছে। অথচ ইংরেজি বিষয়ে সর্বমোট প্রশ্ন আছে ২০টি।
এর থেকেও মারাত্মক ভুল রয়েছে প্রশ্নটির অ্যাকাউন্টিং অংশে।

অ্যাকাউন্টিং অংশে শিক্ষার্থীদের জন্য বাংলার পাশাপাশি ইংরেজি মাধ্যমেও পরীক্ষা দেয়ার সুযোগ ছিল। এই অংশের ১৮ নম্বর প্রশ্নের সঠিক উত্তর বাছাইয়ে মোট পাঁচটি অপশন দেয়া হয়। প্রশ্নটির সঠিক উত্তর হবে ‘ডি’ অপশন। প্রশ্নপত্রে এই অপশনটি বাংলায় লেখা হয় ‘৫:৯:৫’ এবং ইংরেজিতে লেখা হয় ‘৬:৯:৫’। ফলে শিক্ষার্থীরা বাংলা নাকি ইংরেজিকে সঠিক অপশন হিসেবে ধরবে তা নিয়ে বিভ্রান্তিতে পড়ে যায়।

পরীক্ষার হলে দায়িত্বরত শিক্ষকদের কাছে বিষয়টির সমাধান চাইলে তারা কোনো সন্তোষজনক উত্তর দিতে পারেননি বলে শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেছেন। ফলে সঠিক উত্তর জানা থাকা সত্ত্বেও অনেকে প্রশ্নটির উত্তর করেনি। তাদের যুক্তি হল- সঠিক হলে যেমন নম্বর পাওয়া যাবে, যদি উত্তরপত্র দেখার সময় বাংলাকে সঠিক ধরা হয় তাহলে ভুল উত্তরের জন্য তাদের নম্বর কাটা যাবে- এ জন্যই তারা উত্তর করেনি।

প্রশ্নপত্রে সবচেয়ে বেশি ভুল হয়েছে মার্কেটিং বিষয়ে। এ বিষয়টিতে বাংলা ও ইংরেজি উভয় মাধ্যমেই প্রশ্ন করা হয়।

বাংলা মাধ্যমের প্রশ্নের বানানে অন্তত ৯টি ভুল পাওয়া গেছে। ভুল থাকা প্রশ্নের নম্বরগুলো হল : ১, ৪, ৭, ৯, ১২, ১৩, ১৭ ও ১৮। এর মধ্যে ৭নং প্রশ্নেই দুটি বানান ভুল করা হয়েছে। এর মধ্যে বেশিরভাগ ভুলই হয়েছে ‘ণ-ত্ব ও ষ-ত্ব বিধান’ বিষয়ক।

এ ছাড়া প্রশ্নপত্রের অন্য একটি সেটে সিরিয়াল নম্বর ঠিক রাখা হয়নি। একটি সেটের ফিন্যান্স অংশে ৬ নম্বর প্রশ্নের পরে ৭ নম্বর প্রশ্ন না দিয়ে ৮ নম্বর প্রশ্ন দেয়া হয়েছে। ফলে এই সেটটিতে এক প্রশ্ন কম দেয়া হয়েছে।

এ ছাড়া প্রশ্নপত্র প্রণয়নে বাংলা বিষয়ে সাধারণত Sutonny MJ ফন্ট ব্যবহার করা হলেও এই প্রশ্নটিতে Sutonny MJ ও Vrinda এই দুই ধরনের ফন্টই ব্যবহার করা হয়েছে।

এদিকে পরীক্ষার পুরো সময়টাতে বিব্রতকর অবস্থায় ছিলেন কেন্দ্রে দায়িত্বরত শিক্ষকরা। শিক্ষার্থীরা তাদের কাছে প্রশ্নপত্রের বিভিন্ন অসঙ্গতির বিষয়ে জানতে চাইলেও তারা এর সমাধান দিতে পারেননি।

এসব বিষয়ে ‘গ’ ইউনিট ভর্তি পরীক্ষা কমিটির আহ্বায়ক ও ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম বলেন, একটি সেটে একটি প্রশ্ন কম ছিল। আমরা বলে দিয়েছি, পরীক্ষার্থী সেই প্রশ্নটির উত্তর দিক বা না দিক, সবাইকে সেই প্রশ্নটির নম্বর দিয়ে দেয়া হবে। এর বাইরে প্রশ্নপত্রে অন্য কোনো ভুল হয়নি বলে দাবি করেন তিনি।

ঢাকা, ০১ অক্টোবর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//জেএন