[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



শিশুদের মানবিক ও সাংস্কৃতিক মূল্যবোধে গড়ে তুলতে হবে : সংস্কৃতিমন্ত্রী


প্রকাশিত: October 22, 2016 , 3:07 pm | বিভাগ: মিডিয়া এন্ড ইভেন্ট


dru

ডিআরইউ লাইভ: সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেছেন, প্রতিটি শিশুই মেধাবী ও সৃজনশীল। তাদের এই মেধা ও সৃজনশীলতাকে মানবিক ও সাংস্কৃতিক মূল্যবোধে গড়ে তুলতে হবে। এ জন্য শিশু-কিশোরদের লেখাপড়ার পাশাপাশি শিল্প-সাহিত্য ও সংস্কৃতিচর্চার মধ্যে দিয়ে বড় করে তুলতে হবে। আর এটা করতে পারলেই সমাজের জন্য তা মঙ্গল বয়ে আনবে।

শুক্রবার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সদস্য সাংবাদিক সন্তানদের অংশগ্রহণে দিনব্যাপী শিশু-কিশোর সাংস্কৃতিক উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

ডিআরইউ সভাপতি জামাল উদ্দীনরে সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদের পরিচালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বরেণ্য সঙ্গীত শিল্পী খুরশিদ আলম, বিশিষ্ট সঙ্গীত পরিচালক শেখ সাদি খান, চিত্রশিল্পী আবুল বারক আলভী, মনিরুজ্জামান, ডিআরইউ’র সাংস্কৃতিক সম্পাদক মনিরুল ইসলাম বক্তব্য রাখেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংস্কৃতি মন্ত্রী আরো বলেন, অর্থনেতিক উন্নয়নের পাশাপাশি মানবিক, সাংস্কৃতিক ও উদার সমাজ গঠনেও উদ্যোগী হতে হবে। অভিভাবকরা শিশুদের গল্পের বই পড়ে শোনাবেন, ছবি আঁকতে দেবেন, ভাল যা কিছু করতে চায়, করতে দেবেন। এতে তার বাইরের জানালাগুলো খুলে যাবে, বই পড়ায় অভ্যাস হবে। এর ফলে তারা কখনই বিপথগামী হবে না।

তিনি বলেন, শিশুরা কখনোই নিজেদের মধ্যে ধর্ম-বর্ণ, ধনী-গরীব কিংবা অন্য কোনো ধরনের বৈষম্য করে না। তারা যখন স্কুলে যায়, তখন ক্লাসের সকলের সাথেই বন্ধুত্ব করে। তাদের এই উদার মানসিকতা ধরে রাখতে হবে। ছোটবেলা থেকেই শিশুরা সংস্কৃতিচর্চার মধ্য দিয়ে গড়ে উঠলে তারা অসাম্প্রদায়িক চেতনা নিয়ে বড় হবে। তার মধ্যে ধর্ম, বর্ণ, গোত্রের ভেদাভেদ থাকবে না।

শিশু-কিশোরদের জন্য ডিআরইউ’র এ সাংস্কৃতিক চর্চার উদ্যোগের প্রশংসা করে তিনি মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ডিআরইউকে সহযোগিতা বাড়ানোর আশ্বাস দেন। এর আগে মন্ত্রী ডিআরইউ প্রাঙ্গণে বেলুন উড়িয়ে উৎসবের উদ্বোধন করেন। পরে তিনি ডিআরইউ ক্যান্টিনে শিশু-কিশোরদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ঘুরে দেখেন।

দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসবে দেড় শতাধিক শিশু-কিশোর চিত্রাঙ্কন, সঙ্গীত ও আবৃত্তি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। প্রতিযোগিতা শেষে বিকেলে বিজয়ী ও অংশগ্রহণকারী শিশুদের পুরস্কৃত করা হয়।

উদ্বোধনী ও সমাপণী অনুষ্ঠানে সঙ্গীত শিল্পী শাহনাজ বেলী, আবৃত্তিকার ফয়জুল আলম পাপ্পু, রেজীনা ওয়ালী লীনা, রোকেয়া চৌধুরী বেবী, ডিআরইউ’র অর্থ সম্পাদক কামরুজ্জামান কাজল, সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ জামাল, দপ্তর সম্পাদক মেহদি আজাদ মাসুম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক কাফি কামাল, ক্রীড়া সম্পাদক মজিবুর রহমান, কল্যাণ সম্পাদক জিলানী মিলটন, কার্যনির্বাহি সদস্য ওসমান গনি বাবুল ও মাহমুদ এ রিয়াত উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকা, ২২ অক্টোবর, (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)// আইএইচ