[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



রবি’র প্রথম বাংলাদেশী এমডি ও সিইও’ মাহতাব


প্রকাশিত: November 1, 2016 , 9:52 am | বিভাগ: এচিভমেন্ট


mahtab+robi+cl

লাইভ প্রতিবেদক: রবি আজিয়াটা লিমিটেডের প্রথম বাংলাদেশী ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার (সিইও) হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। ২০১৪ সালের জানুয়ারি থেকে একই দায়িত্বে থাকা সুপুন বীরাসিংহের স্থলাভিষিক্ত হবেন তিনি। রবি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, সুপুন শ্রীলঙ্কার প্রধান মোবাইলফোন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ডায়লগ আজিয়াটা পিএলসির (ডায়লগ) গ্রুপ সিইও হিসেবে ফিরে যাচ্ছেন। ২০১৭ সালের ১লা জানুয়ারি থেকে তিনি ওই দায়িত্ব পালন করবেন।

আজিয়াটা গ্রুপের এক্সেলারেটেড লিডারশিপ ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামকে কেন্দ্র করে নেতৃত্বের এ পরিবর্তন গত কয়েক বছর ধরে পরিকল্পিত ও পরিচালিত কর্মসূচির পূর্ণতা দিচ্ছে। এমডি এবং সিইও হিসেবে মাহতাবের নিয়োগ বাংলাদেশের স্থানীয় প্রতিভার উন্নয়ন ও এগিয়ে নিতে রবি’র চলমান প্রচেষ্টার অংশ। মাহতাবের নিয়োগের ব্যাপারে আজিয়াটা গ্রুপ বারহাদের প্রেসিডেন্ট এবং গ্রুপ সিইও তানশ্রী জামালউদ্দিন ইব্রাহিম বলেন, আমাদের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এবং প্রধান বাজার বাংলাদেশে নতুন সিইও হিসেবে মাহতাবকে নিয়োগ দিতে পেরে আমরা আনন্দিত। অনেক বছর ধরেই আজিয়াটার বাণিজ্যিক কৌশলের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসেবে প্রাধান্য পাচ্ছে মেধা ব্যবস্থাপনা।

নেতৃত্ব উন্নয়নে আমাদের নিরলস মনোযোগ কোম্পানিগুলোর সিইওসহ নেতৃত্ব স্থানীয় পদে নিয়োগের জন্য বড় সংখ্যক কর্মীবাহিনীর প্রস্তুতি নিশ্চিত করেছে। মাহতাবের নিয়োগ আজিয়াটার এশিয়ান ট্যালেন্ট ফ্যাক্টরি তৈরির প্রতিশ্রুতিকে সুদৃঢ় করেছে। ভারতী এয়ারটেলের সঙ্গে একীভূত হওয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশের বাজারে রবি তার অবস্থানকে শক্তিশালী করবে বলে আমরা মনে করি। আমি আত্মবিশ্বাসী যে, একীভূত কোম্পানিতে প্রথম বাংলাদেশি সিইও হিসেবে মাহতাব সুদৃঢ় নেতৃত্ব ও সুদূরপ্রসারী দৃষ্টি দেবেন। নতুন সিইও হিসেবে মাহতাবের নিয়োগের ঘোষণা গত জুলাইতে দেয়া হয়। তখন তিনি আজিয়াটা গ্রুপের বিশেষ দায়িত্বে নিয়োজিত ছিলেন।

এরপর সিইও হিসেবে তার স্থলাভিষিক্ত হওয়ার পথে পূর্ণতা দেয়ার জন্য ২০১৬ সালের ১লা সেপ্টেম্বর ডেপুটি চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার হিসেবে তিনি রবিতে ফিরে আসেন। ২০১৪ সালের এপ্রিল থেকে ২০১৬ সালের মার্চ পর্যন্ত রবি’র চিফ অপারেটিং অফিসার (সিওও) পদে দায়িত্ব পালন করেন মাহতাব। ২০১০ সালে চিফ ফিন্যান্সিয়াল অফিসার (সিএফও) হিসেবে রবিতে যোগদান করার আগে তিনি ইউনিলিভারের বিভিন্ন নেতৃস্থানীয় পদে ১৭ বছর দায়িত্ব পালন করেন। ইউনিলিভার পাকিস্তান, ইউনিলিভার আরব এবং ইউনিলিভার বাংলাদেশে ফিন্যান্স ডিরেক্টরসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে তিনি দায়িত্ব পালন করেছেন।

মাহতাব ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে হিসাববিজ্ঞানে অনার্স এবং মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ইনস্টিটিউট অব কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্ট অব বাংলাদেশের (আইসিএমএবি) ফেলো সদস্য, এফসিএমএ ও সিজিএমএ অব চার্টার্ড ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টস (সিআইএমএ, ইউকে)। এছাড়া তিনি হার্ভার্ড বিজনেস স্কুলের অ্যালামনাই (এএমপি ১৯০)।

 

ঢাকা, ০১ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)// এএসটি