[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



ঢাবিতে তিন দিনব্যাপী নন-ফিকশন বইমেলা


প্রকাশিত: November 1, 2016 , 4:49 pm | বিভাগ: আপডেট,ঢাকার ক্যাম্পাস,পাবলিক ইউনিভার্সিটি


DU1

ঢাবি লাইভ: শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ব্যবসা, বাণিজ্য ও অর্থনীতিসহ বিভিন্ন ধরনের নন-ফিকশন বইয়ের পরিচিতি বৃদ্ধির লক্ষ্যকে সামনে রেখে দ্বিতীয়বারের মতো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) শুরু হচ্ছে ‘নন-ফিকশন বইমেলা ২০১৬’।

মঙ্গলবার সকাল ১০টায় ব্যবসায় অনুষদ প্রাঙ্গণে তিন দিনব্যাপী মেলার উদ্বোধন করবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। দেশের খ্যাতিমান ২৪টি প্রকাশনা ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে এতে অংশ নেবে। এই বই মেলা চলবে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।

শিক্ষার্থীদের বই পড়া ও বইয়ের প্রতি আগ্রহ সৃষ্টিতে অভিভাবকদের দায়িত্বের কথা তুলে ধরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ভিসি প্রফেসর ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকী বলেছেন, অভিভাবকরা সন্তানের প্রতি খেয়াল রাখুন এবং বই পড়ায় আগ্রহী করে তুলুন। মেধা ও জ্ঞানের বিকাশে বইয়ের কোনো বিকল্প নেই। মঙ্গলবার বেলা পৌনে ১২টার দিকে ঢাবিতে তিন দিনব্যাপী নন-ফিকশন বইমেলার উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা বলেন।

DU

বিশ্ববিদ্যালয় ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ ও বণিক বার্তার আয়োজনে এই মেলার পৃষ্ঠপোষকতায় রয়েছে ইসলামী ব্যাংক, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক, ওয়ালটন, এক্সিম ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক, রূপালী ব্যাংক, সিম্ফনি মোবাইল, ইস্পাহানী, প্রাণ ও মার্কেট প্লাস।

আরেফিন সিদ্দিকী বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীদের মেধা ও জ্ঞান বিকাশে বেশি বেশি করে বই পড়তে হবে। এজন্য বই মেলার আয়োজন করতে হবে। মনে রাখতে হবে, আমরা যদি শিক্ষার্থীদের বাংলার ইতিহাস ও সংস্কৃতি সম্পর্কে জানাতে না পারি তাহলে সেটি হবে ব্যর্থতা। তাই সন্তানের প্রতি খেয়াল রাখুন এবং বই পড়ায় আগ্রহী করে তুলুন। এজন্য সবাইকে বেশি বেশি বই কেনারও আহ্বান করছি।

তিনি আরও বলেন, যখন একটি সন্তান ভালো ফলাফল করে তখন আমরা তার প্রশংসা করি। আর খারাপ কাজ করলে সমালোচনায় মাতি। কিন্তু আমাদের উচিত সন্তানের ভালো এবং মন্দ সবকিছু বিবেচনায় রাখা।

ঢাবিতে দ্বিতীয় বারের মতো অনুষ্ঠিত হচ্ছে নন-ফিকশন বইমেলা-২০১৬। মেলায় শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত আত্মজীবনী, ইতিহাস, সংস্কৃতি, তথ্য প্রযুক্তিসহ নানান বই পাওয়া যাচ্ছে। মেলা চলবে প্রতিদিন সকাল ১০ থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।

বইমেলা উদ্বোধনকালে আরও উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেস অনুষদের ডিন প্রফেসর শিবলি রুবায়েত–উল ইসলাম, ফাস্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ ওয়াসেক মো. আলী, ‍বণিক বার্তা সম্পাদক দেওয়ান হানিফ মাহমুদসহ প্রমুখ।

প্রফেসর শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম বলেন, যান্ত্রিক জীবনে আমরা এখন মেকানিক্যাল রোবটে পরিণত হয়ে যাচ্ছি। আমরা এখন আর মানুষ থাকছি না। বই ছেড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সময় ব্যয় করছি। যার কারণে বই পড়ার আগ্রহ কমে যাচ্ছে। আর বই পড়ার আগ্রহ কমে গেলে লেখকরা বই লিখতে উৎসাহ পাবেন না। মানুষের বই পড়ার আগ্রহ সৃষ্টিতে এ বই মেলা যুগোপযোগী ভূমিকা রাখবে।

মেলার দ্বিতীয় দিন ২ নভেম্বর সকাল ১০টায় ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের সম্মেলন কক্ষে ‘উচ্চশিক্ষায় নন-ফিকশন বই’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে আলোচনায় অংশ নেবেন ইমেরিটাস প্রফেসর আনিসুজ্জামান। সেমিনারে লেখক, পাঠক ও প্রকাশক-শিক্ষাবিদ-শিক্ষকরা অংশগ্রহণ করবেন।

৩ নভেম্বর (বৃহস্পতিবার) বিকাল ৫টায় ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের বইমেলার সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখবেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবদুল মান্নান। এতে বিশেষ অতিথি থাকবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি (প্রশাসন) প্রফেসর ড. মো. আখতারুজ্জামান। সমাপনী অনুষ্ঠানটি ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হবে।
ঢাকা, ১ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)// আইএইচ