[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



বিশ্ববিদ্যালয় শুধু পড়ার জায়গা নয়, জ্ঞান সৃষ্টির জায়গাও: আনিসুজ্জামান


প্রকাশিত: November 3, 2016 , 2:25 pm | বিভাগ: আপডেট,ঢাকার ক্যাম্পাস,পাবলিক ইউনিভার্সিটি


DU1

ঢাবি লাইভ: উচ্চশিক্ষার উদ্দেশ্য হলো পুরনো জ্ঞানের বিচার বিশ্লেষণ, নতুন জ্ঞান সৃজন ও বিতরণ। ইতিহাস, দর্শন, সমাজবিজ্ঞান, রাজনীতি, অর্থনীতি প্রভৃতি বিষয়ে উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে নন-ফিকশন গ্রন্থ সহায়ক ভূমিকা পালন করে। তাই শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের জ্ঞানের পরিধি বাড়াতে নন-ফিকশন বই পড়তে হবে।

বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ মিলনায়তনে ‘উচ্চশিক্ষায় নন-ফিকশন বই’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় বক্তরা এসব কথা বলেন। বণিক বার্তা ও ঢাবির ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের যৌথ উদ্যেগে আয়োজিত নন-ফিকশন বইমেলা উপলক্ষে সভাটির আয়োজন করা হয়। এ আয়োজনে নলেজ পার্টনার ছিল ভয়েস অব বিজনেস, বাংলাদেশ স্টাডি ফোরাম ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যারিয়ার ক্লাব।

সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস প্রফেসর আনিসুজ্জামান। আলোচক হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সাংবাদিক ও কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, বিশ্ববিদ্যালয় বাংলা বিভাগের প্রফেসর আবুল কাশেম ফজলুল হক, সাহিত্য প্রকাশের প্রকাশক মফিদুল হক, সময় প্রকাশনের ফরিদ আহমেদ, ব্যাংকার ও অর্থনীতি বিশ্লেষক মামুন রশীদ, ইউনিভার্সিটি প্রেস লিমিটেডের (ইউপিএল) মার্কেটিং অ্যান্ড বিসেনস ডেভেলপমেন্ট বিভাগের পরিচালক মাহরুখ মহিউদ্দিন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে প্রফেসর আনিসুজ্জামান বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় শুধু পড়ার জায়গা নয়, জ্ঞান সৃষ্টির জায়গাও। আর সেজন্য বই পড়া প্রয়োজন, বিশেষ করে নন-ফিকশন বই। শিক্ষার্থীদের শিক্ষার্থীদের বই চেনা জানার সুযোগ করে দিতে হবে।

তিনি বলেন, ই-বুক আসার পর অনেকেই বলে ছিল প্রকাশিত বইয়ের চাহিদা কমবে। এক্ষেত্রে আমার মত হচ্ছে বইয়ের প্রিন্টেড কপির একটি বিশেষত্ব রয়েছে। প্রিন্টেড বই হাতে নিয়ে পড়ার মাঝে যে আনন্দ রয়েছে, তা ই-বুকে নেই।

সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, উচ্চশিক্ষার মূল উদ্দেশ্যই হলো পুরনো জ্ঞানের বিচার-বিশ্লেষণ ও নতুন জ্ঞান সৃষ্টি। তত্ত্বীয় বিজ্ঞান ছাড়া ইতিহাস, দর্শন, সমাজবিজ্ঞান, রাজনীতি, অর্থনীতি প্রভৃতি উচ্চশিক্ষার বিষয়ে মননশীল নন-ফিকশন গ্রন্থই সহায়ক। এমনকি কবিতা, কথা সাহিত্য প্রভৃতির বিচার-বিশ্লেষণমূলক যেসব গ্রন্থ তাও নন-ফিকশন।

কোন ভাষা কতটা উন্নত ও সমৃদ্ধ এবং জ্ঞানচর্চার জন্য কতটা উপযুক্ত তা তার নন-ফিকশন সাহিত্য কতটা সমৃদ্ধ তা দেখেই বিচার্য। বাংলা ভাষার গত দেড় শ বছরের নন-ফিকশন সাহিত্য খুবই উন্নত।

ঢাকা, ৩, নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)// আইএইচ