[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



সাইবার ঝুঁকিতে শীর্ষে দেশের আর্থিক খাত


প্রকাশিত: November 4, 2016 , 9:04 pm | বিভাগ: আইটি


cyber-attack
আইটি লাইভ: বাংলাদেশ ব্যাংকের সাম্প্রতিক ঘটনার পরও অনেক ব্যাংক এখনও নিরাপত্তা ব্যবস্থায় যতটুকু পদক্ষেপ নেয়া প্রয়োজন তা নিচ্ছে না। এ বিষয়ে গত দুই বছর ধরে সিটিও ফোরাম সকলকে সচেতন হওয়ার আহবান জানিয়ে আসলেও তাতে আশানরূপ ফল মিলছে না।

বৃহস্পতিবার সন্ধায় রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে আয়োজিত ‘অ্যাসিওর অ্যান্ড সিকিউর ইউর সার্ভিসেস ইন দ্যা অ্যাপ্লিকেশন অন ইকোনমি’ সেমিনারে এমন আক্ষেপ তুলে ধরেন সিটিও ফোরাম সভাপতি তপন কান্তি সরকার।

সেমিনারে মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন সিএ টেকনোলজিসের জ্যেষ্ঠ কান্ট্রি ডিরেক্টর অনিমেষ সাহা। বক্তব্য রাখেন তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার। সেমিনারে অ্যাপ্লিকেশন ইকোনমিতে কিভাবে আমদের সার্ভিস গুলো আরও নিরাপদ করতে পারি সে বিষয়ে আলোকপাত করা হয়।

আলোচনায় তপন কান্তি সরকার ব্যাংকিং সেক্টরে সাইবার অপরাধের কিছু তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরেন। তিনি জানান, গত ৬ জানুয়ারী ২০১৩ সালে ইসলামি ব্যাংকের ওয়েবসাইট হ্যাক করে ’হিউম্যান মাইন্ড ক্রেকার’।

গত ২ ডিসেম্বর ২০১৫ সালে ‘মুসলিম হ্যাকার’ নামে একটি দল সোনালী ব্যাংকের নেটওয়ার্ক সিটিউরিটি ভেঙে কয়েক ঘন্টার জন্য ওয়েবসাইটের পুরো কন্ট্রোল নিয়ে নেয়। ফেব্রুয়ারি ২০১৬ সালে এটিএম এর জালিয়াতি সবার সামনে আসে এবং এর পর পর বাংলাদেশ ব্যাংকের সুইফটের মাধ্যমে টাকা লেনদেনের বড় ধরনের প্রতারনার ঘটনা ঘটে।

তিনি বলেন, ‘পি.ডব্লিউ.সি এর ২০১৬ সালের জরিপে বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক অপরাধের মধ্যে সাইবার অপরাধ দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান করছে। ক্যাসপারিস্কি ল্যাবের ২০১৫ সালের ডিসেম্বরের গবেষনায় দেখা যায় কম্পিউটারের সাথে বিভিন্ন এক্সটারনাল ডিভাইস ব্যাবহারের ফলে সবচেয়ে বেশী নিরাপত্তা ঝুকিঁর দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয় স্থানে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের দেশে বর্তমানে ই-কমার্সের প্রসার হচ্ছে। তাই ইলেক্ট্রনিক লেনদেনের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে পিসিআই-ডিএসএস ও ইএমভির মত প্রযুক্তি ব্যাবহার বাধ্যতামুলক করতে হবে।’

সেমিনারের দ্বিতীয় ভাগে সিটিও ফোরামের সভাপতি তপন কান্তি সরকারের সঞ্চালনায় একটি প্যানেল আলোচনার আয়োজন করা হয়।

ঢাকা, ৪, নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)// আইএইচ