[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



বুয়েট ভর্তির বিস্তারিত…


প্রকাশিত: October 2, 2014 , 4:24 pm | বিভাগ: এডমিশন,ক্যাম্পাস,ঢাকার ক্যাম্পাস,পাবলিক ইউনিভার্সিটি


লাইভ প্রতিবেদক : ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থীদের কাছে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) একটি স্বপ্নের প্রতিষ্ঠান। কিন্তু মাত্র ১০০০ আসনের বিপরীতে হাজার হাজার শিক্ষার্থীদের বাছাই করতে এই প্রতিষ্ঠানটি নানা বাধ্যবাধকতা দিয়ে দিয়েছে। বুয়েট ভর্তি পরীক্ষার এই মহাযুদ্ধে যারা অংশ গ্রহণ করতে চান তাদের জন্যে কিছু বিষয় জানা অত্যন্ত আবশ্যক। তাহলে আসুন জেনে নিই বুয়েট ভর্তির বিস্তারত তথ্য।

আবেদনের যোগ্যতা
ভর্তি বিজ্ঞপ্তি অনুসারে যারা কেবল মাত্র ২০১১ ও ২০১২ সালে এসএসসি পরীক্ষা এবং ২০১৩ ও ২০১৪ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে আলাদা ভাবে প্রতি পরীক্ষায় ৪.০০ পয়েন্ট পেয়েছেন কেবল তারাই এই বছর বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষায় আবেদন করতে পারবেন। তবে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় গণিত, পদার্থ, রসায়ন বিষয়ের প্রত্যেকটিতে আলাদা করে জিপিএ ৫ পেতে হবে। ইংরেজি এবং বাংলায় সর্বনিম্ন ৯ পয়েন্ট পেতে হবে।
আবেদনকারীদের মধ্য থেকে বাছাই করে ৮৫০০ জনকে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেওয়া হবে। তবে ন্যূনতম যোগ্যতা পূরণ সাপেক্ষে ক্ষুদ্র জাতি গোষ্ঠীভুক্ত সকল সঠিক আবেদনকারীকে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেওয়া হবে।

আসন সংখ্যা
ভর্তি পরীক্ষায় সব বিষয়গুলোকে দুটি গ্রুপে ভাগ করা হয়।

গ্রুপ ‘ক’
কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ(৬০), বস্তু ও ধাতব কৌশল বিভাগ(৫০), সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ(১৯৫), পানিসম্পদ কৌশল বিভাগ(৩০), মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ(১৮০), নৌযান ও নৌযন্ত্র কৌশল বিভাগ(৫৫), ইন্ডাস্ট্রিয়াল এন্ড প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ(৩০), ইলেক্ট্রিক্যাল ও ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ(১৯৫), কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ(১২০), নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ(৩০)।

গ্রুপ ‘খ’
‘ক’ গ্রুপের সকল বিষয় এবং স্থাপত্য বিভাগ(৫৫)।

পরীক্ষা পদ্ধতিঃ
‘ক’ গ্রুপের জন্যে গণিত, পদার্থ, রসায়ন এই তিন বিষয়ে ২০০ নম্বর করে মোট ৬০০ নম্বরের পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করতে হবে। এই তিনটি বিষয়ের ২০০ নম্বরের পুরোটাই লিখিত পরীক্ষা হবে এবং এবারের ভর্তি পরীক্ষায় কোন এমসিকিউ থাকবে না।

‘খ’ গ্রুপের জন্যে ৬০০ নম্বরের পাশাপাশি ৪০০ নম্বরের মুক্ত হস্তে অংকনের পরীক্ষা নেওয়া হবে।
ভর্তি পরীক্ষার সময় কেবলমাত্র কলম, পেন্সিল, ইরেজার, পেন্সিল শার্পনার ও অনুমোদিত ক্যালকুলেটর
ব্যবহার করা যাবে।

ভর্তি আবেদন অনলাইনে আগামী ১৪ অক্টোবর থেকে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত করা যাবে। এসএমএসের মাধ্যমে আবেদন ফি জমা দিতে হবে।

উল্লেখ্য, ‘খ’ গ্রুপের ৪০০ নম্বরের মুক্ত হস্তে অংকন পরীক্ষায় পাশ করার জন্যে শতকরা কমপক্ষে ৪০ ভাগ নম্বর পেতে হবে।

বিস্তারিত জানতে বুয়েট ওয়েব সাইট দেখুন।

ঢাকা,০২অক্টোবর(ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমএ