[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



‘সিলক্রিম’ হীন ঢামেক বার্ণ ইউনিট, রোগীদের দুর্ভোগ


প্রকাশিত: November 7, 2014 , 8:49 pm | বিভাগ: ঢাকার ক্যাম্পাস,মেডিকেল কলেজ


silcreamঢামেক লাইভ : ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আধুনিকায়নসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন হলেও বাড়ছে না চিকিৎসার মান। কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা এবং বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা দিতে সংশি্লষ্টদের উদাসীনতাই এর জন্য দায়ী বলে অভিযোগ রয়েছে চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও স্বজনদের।

অভিযোগটি প্রকটভাবে প্রতীয়মান হয় যখন হাসপাতালের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ৩শ’ শয্যার বার্ণ ইউনিটে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় ‘সিলক্রিম’ না থাকে। অভিযোগ পাওয়া গেছে গত এক সপ্তাহ যাবৎ ওয়ার্ডটিত ভর্তি হতে আসা রোগীদের বাইরে থেকে সিলক্রিম এনে পোড়া রোগীদের প্রাথমিক চিকিৎসা শুরু করতে হচ্ছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, প্রতিদিনই ওয়ার্ডটিতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে রোগী এসে ভর্তি হচ্ছে। আর এ কারণে ওয়ার্ডটির সেবার মান আরো বাড়ানোর দরকার। তবে তা না বেড়ে এখন ন্যূনতম প্রাথমিক চিকিৎসা সামগ্রীর ঘাটতিতে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রোগী এবং স্বজনদের।

শুক্রবার সন্ধ্যায় হাসাপাতালের বার্ন ইউনিট ঘুরে দেখা যায়, সারাদিনে মোট আটজন দগ্ধ রোগী চিকিৎসা নিতে এসেছেন। দুপুর তিনটার দিকে রাজধানী গুলশান-১ নম্বর সেক্টর এলাকার সিক্স সিজন হোটেলে এসি মেরামত করার সময় বিস্ফোরণে দগ্ধ হয়ে ঢামেক বার্ন ইউনিটে চিকিৎসা নিতে আসেন কার্তিক ও সোহেল রানা।

তাদের সঙ্গে আসা হোটেলের নিরাপত্তাকর্মী সজীব জানান, দগ্ধ অবস্থায় কার্তিক আর সোহেলকে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তখন কর্তব্যরত ব্রাদার তাদেরকে জানান, হাসপাতালের সিলক্রিম শেষ হয়ে গেছে।

এদিকে ওষুধের অভাবে হাসপাতালের ট্রলির ওপর প্রায় একঘণ্টা কাতরাতে থাকেন রোগীরা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত ব্রাদার তৌহিদুল জানান, গত পাঁচ-ছয় দিন ধরে সিলক্রিম না থাকায় রোগীর স্বজনদের বাইরে ওষুধটি কেনার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

রোগীদের অভিযোগের কথা স্বীকার করে হাসপাতাল বার্ন ইউনিটের আবাসিক সার্জন পার্থ শঙ্কর পাল গণমাধ্যমকে জানান, হাসপাতালে কোনো দগ্ধ রোগী এলে আমাদের প্রথম কাজ ক্ষত ও আশপাশে সিলক্রিম লাগিয়ে ব্যান্ডেজ করে দেওয়া। ক্ষত শুকানো এবং যন্ত্রণা কমানোর জন্য এই ক্রিমটি ব্যবহার করা হয়। এরপরে অন্যান্য ওষুধের পরামর্শ দেওয়া হয়।

তবে হাসপাতালে স্যালাইন, প্যাথেডিন, গজসহ আনুষঙ্গিক সব ওষুধ থাকলেও কয়েকদিন ধরে সিলক্রিমটি নেই। হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোস্তাফিজুর রহমান দেশের বাইরে থাকায় ওষুধটি কেনার প্রক্রিয়া কিছুটা বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

ঢাকা, ৭ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)// টিটি