[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



জবি ছাত্রী হলে রিক্সা গ্যারেজ ও ওয়ার্কশপ!


প্রকাশিত: August 15, 2014 , 7:12 pm | বিভাগ: এক্সক্লুসিভ,ঢাকার ক্যাম্পাস,পাবলিক ইউনিভার্সিটি


JU-1
সামী সরকার, জবি :
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) একমাত্র ছাত্রী হলের (বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল) ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের প্রায় ১০ মাস পার হয়ে গেলেও এখনও নির্মাণ কাজ শুরু করতে পারেনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ২০১৩ সালের বিশ্ববিদ্যালয় দিবসে (২২ অক্টোবর) শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ হলটির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। তবে কর্তৃপক্ষের উদাসীনতায় বর্তমানে হলের জায়গাটিতে রিকশা-ভ্যানের গ্যারেজ ও একাধিক ওয়ার্কশপ গড়ে উঠেছে ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ৩/১, লিয়াকত এভিনিউয়ের ২৩ কাঠা জায়গাটির অবৈধ দখলদারদের ২০১২ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের তৎকালীন আহবায়ক সাইফুল ইসলাম আকন্দের নেতৃত্বে উচ্ছেদ করেছিলেন শিক্ষার্থীরা। এসময় তারা সেখানে ছাত্রী হলের ব্যানার টাঙিয়ে দেন।

২০১৩ সালের ২৫ আগস্ট জায়গাটিতে ‘বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব’ ছাত্রী হল নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ। ওই দিন শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বৈঠকে এক হাজার ছাত্রীর আবাসন সুবিধা নিশ্চিত করতে ২০ তলা বিশিষ্ট দুটি ভবন নির্মাণের প্রাথমিক কাজ শুরুর সিদ্ধান্ত হয়। বৈঠকে এ প্রকল্পের লে-আউট প্লাান ও ডিজাইন নিয়েও আলোচনা হয়।

আর ২২ অক্টোবর হলটির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে গত ৬ মার্চ শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের এক বৈঠকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ছাত্রী হলের টেন্ডার আহবান করার সিন্ধান্ত হলেও দৃশ্যত এ প্রকল্পের কোনো অগ্রগতি হয়নি।

গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী কাজী নাফিয়া রহমান বলেন, সরকার ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বারবার হল নির্মাণের আশ্বাস দিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু বাস্তবে কাজের কোন অগ্রগতি নেই।

দর্শন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী সুমনা ইয়াসমীন বলেন, শিক্ষামন্ত্রী দ্রুত হল নির্মাণের আশ্বাস দিলেও তা বাস্তবায়ন হচ্ছে না। আদৌ বিশ্ববিদ্যালয়ে কোন ছাত্রী হল হবে কিনা তা নিয়েই আমাদের সন্দেহ হচ্ছে।

Capture

সরেজমিনে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের কতিপয় কর্মচারী ও কর্মকর্তার ইন্ধনে হলটির জায়গা রিক্সা-ভ্যানের গ্যারেজে পরিণত হয়েছে। পাশাপাশি সেখানে রিক্সা-ভ্যান মেরামতের চারটি ওয়ার্কসপও গড়ে উঠেছে। আর সন্ধ্যার পর থেকেই জায়গাটি পরণত হয় নেশাখোরদের অভয়ারণ্যে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জবি ভিসি প্রফেসর ড. মীজানুর রহমান ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কমকে বলেন, প্লানিং কমিশনের কিছু জটিলতার কারণে হলটির নির্মাণ কার্যক্রম পিছিয়ে পড়েছে। তবে হলটির টেন্ডার হয়েছে। আশা করছি শিগগিরই হলটির নির্মাণ কাজ শুরু হবে।

 

জবি//এসএস, ১৫ আগষ্ট(ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//আরজে