[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



চবি ছাত্রলীগের ‘ভিএক্স’ ক্যাডার আশা অপকর্মই যার নেশা


প্রকাশিত: December 15, 2014 , 9:21 pm | বিভাগ: এক্সক্লুসিভ


asha

ছবি : অঘটন ঘটন পটিয়সি চবি ছাত্রলীগের ‘ভিএক্স’ গ্রুপের কর্মী আশা।

 

হাসান তারেক, চবি : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের একাংশ ‘ভিএক্স’ গ্রুপের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে অভিযোগের যেন অন্ত নেই। যৌন ক্যালেঙ্কারি থেকে শুরু করে টেন্ডারবাজি, সাংবাদিক নির্যাতন, মুরগী চুরি, পুলিশের উপর হামলা, আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় নেতা বাবুলকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছনাসহ ক্যাম্পাসে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করার মতো নানা অপকর্মের জন্মদাতা এই গ্রুপের নেতাকর্মীরা।

চবির শাটল ট্রেনের বগিভিত্তিক বিভিন্ন সংগঠন ভিএক্স, সিএফসি, সিক্সটি নাইন, একাকার, সাম্পান, এপিটাফ, কনকোর্ড, ফাইট ক্লাব, খাইট্টা খা, অলওয়েজসহ  ছাত্রলীগের নানা সংগঠন রয়েছে। তাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি উশৃঙ্খলা, খুন, রাহাজানি, শিক্ষার্থীদের র‌্যাগিং, হামলা, নির্যাতনসহ বিভিন্ন বেআইনি কর্মকাণ্ডে জড়িত ভিএক্সের নেতাকর্মীরা।

বছরের শুরুতে ১২ জানুয়ারি শাহ আমানত হলে ছাত্রলীগ এবং শিবিরের মধ্যে সংঘর্ষে মামুন হোসেন নামে এক শিবির নেতা নিহত হয়। মামুন হত্যার পিছনেও ছাত্রলীগের ‘ভিএক্স’ নেতাকর্মীদের অভিযুক্ত করা হয়।

৫ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার মিলনায়তনে চবির প্রয়াত ভিসি ড. আবু ইউসুফের স্মরণ সভার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী। এ সময় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক নাসির হায়দার বাবুলকে জুতার মালা পড়ানোসহ শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করা হয় তাকে। তার মোবাইল ফোন ও নগদ টাকাও ছিনিয়ে নেয় ছাত্রলীগের ‘ভিএক্স’ গ্রুপের নেতাকর্মীরা।

এবছরের মাঝখানে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের ‘ভিএক্স’ কর্মীদের বিরুদ্ধে মুরগি চুরির অভিযোগও ওঠে। মুরগি চোরেরা চবির শাখা ছাত্রলীগের গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক হাবিবুর রহমান রবিন ও ছাত্রলীগ নেতা রুপম বিশ্বাসের অনুসারী বলে জানা যায়। এরাও ছাত্রলীগের ‘ভিএক্স’ গ্রুপের নেতাকর্মী।

২০ আগস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে পুলিশ সদস্যদের উপর হামলা করে ছাত্রলীগ নামধারী সন্ত্রাসীরা। এ হামলাতেও প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে ‘ভিএক্স’ নেতাকর্মীরা জরিত ছিল। আইন শৃঙ্খল বাহিনীর ওপর হামলার ঘটনা ২১ আগস্ট বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়ায় চবি ছাত্রলীগের বিলুপ্ত কমিটির সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক ও ‘ভিএক্স’ ক্যাডার আশরাফুজ্জামান আশা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘প্রথম আলো’ প্রতিনিধি তাসনীমকে প্রাণনাশের হুমকি দেন।

এর আগে সে ‘বনিকবার্তা’র বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি এম এ হান্নান হাবিবকে শারিরীক ভাবে লাঞ্ছিত করে। এছাড়াও আরো অসংখ্য অপরাধ করে পাড় পেয়ে যায় ছাত্রলীগের এ ‘ভিএক্স’ ক্যাডার আশারা।

এছাড়া গত ৮ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের কাটা পাহাড়ে হাঁটছিল বাংলা ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী সামিয়া খান তানিয়া। এসময় পেছন থেকে আসা উশৃঙ্খল ভিএক্স সদস্যদের বেপরোয়া গতির মোটরবাইক ধাক্কা দেয় তাকে। ধাক্কায় সে রাস্তার মধ্যে উল্টে পড়ে যায়। এতে তার শরীরের বিভিন্ন অংশে জখম হয়। পরে তাকে চমেকে নিয়ে চিকিৎসা করা হয়। এঘটনায়ও ‘ভিএক্স’ ক্যাডার আশাফুজ্জামান আশার কোন বিচার হয়নি।

tapas cuছবি : চবি ছাত্রলীগের সিএফসি গ্রুপের নিহত কর্মী তাপস।

সর্বশেষ রোববার ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে তাপস সরকার নামে এক ছাত্রলীগ কর্মী নিহত হয়। নিহত তাপসকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করে ‘ভিএক্স’ গ্রুপের ক্যাডাররা। এভাবে একের পর এক অনাহুত ঘটনা ও অপরাধের জন্ম দিয়েও শাস্তির আওতায় আসেনি ভিএক্সের নেতাকর্মীরা।

উল্টো বিভিন্ন সময় প্রশাসনের বিরুদ্ধে তাদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দেবার অভিযোগ রয়েছে। আর এর মাশুল গুনতে হয়েছে চবির সাধারণ শিক্ষার্থীদের। এদের কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্টিফিকেট দূরে থাক ডেথ সার্টিফিকেট নিয়ে বাড়ি ফিরতে হচ্ছে তাপসদের মতো শিক্ষার্থীদের।

এদিকে গত ১০ জুন ছাত্রলীগের বিভিন্ন অপকর্ম ও সাংগঠনিক ব্যর্থতা ও গ্রুপিং দ্বন্দের কারণে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান কমিটি পর্যন্ত বিলুপ্তি  ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। কেউ ছাত্রলীগের পদবি ব্যবহার করে কোন অপকর্ম করতে না পারে সে জন্য এই ব্যবস্থা নেয়া হয়। তবুও থামেনি ছাত্রলীগ। বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে নিজেদের অতীত ইতিহাস ও ঐতিহ্য নষ্টের পাশপাশি ভোগান্তি বাড়িয়েছে সাধারণ শিক্ষার্থীদের।

চবি// এইচটি, ১৫ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)// টিটি