[english_date], [bangla_day], [bangla_date], [hijri_date], [bangla_time]
সর্বশেষ সংবাদ



চবির যৌন নিপীড়ক শিক্ষক ছাত্র অবস্থায় নকল করতেন!


প্রকাশিত: January 6, 2015 , 10:34 pm | বিভাগ: আপডেট,এক্সক্লুসিভ,ক্যাম্পাস,পাবলিক ইউনিভার্সিটি


rajib-nandi

লাইভ প্রতিবেদক: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে অভিযুক্ত যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সেই শিক্ষক রাজীব নন্দির বিরুদ্ধে একের পর এক অভিযোগ আনা হচ্ছে। এবার তার বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র থাকা অবস্থায় নকলের অভিযোগ অানা হয়েছে। তিনি নাকি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকাংশ পরীক্ষা নকল করেই পাশ করেছেন। একটি জাতীয় দৈনিকের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক ছিলেন তাই তাকে কেউ কিছু বলার সাহস করতো না।

সবাই তার অন্যায়কে প্রশ্রয় দিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুধু নকল করে পরীক্ষাই নয় রাজীব বেশি নম্বর দেয়ার জন্য শিক্ষকদের প্রভাবিত করতেন বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। সাংবাদিক হওয়ার সুযোগে তিনি শিক্ষকদের কাছ থেকে বেশি নম্বর হাতিয়ে নিয়েছেন। রাজীব নন্দির নকল করার একটি ছবি আমাদের হাতে এসেছে।

cu-teacher
জানা গেছে, সম্প্রতি ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে এক ছাত্রী যৌন হয়রানির অভিযোগ করায় এনিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। অভিযুক্ত ওই শিক্ষকের বিচার দাবি করেছেন শিক্ষক শিক্ষার্থীরা। ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যমে নানা স্ট্যাটাস দেয়া হচ্ছে। এ অবস্থায় নকলের ছবি প্রকাশ হওয়ায় আরো বিপাকে পড়েছেন রাজীব নন্দি। তবে রাজীব নন্দি তার ফেসবুক ডিঅ্যাক্টিভ করে রেখেছেন।

সম্প্রতি চবির যৌন নিপীড়ক শিক্ষক রাজীব নন্দির ছাত্র অবস্থায় নকলের একটি ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেছেন তারই সহকর্মী আনিস রায়হান। তিনি লিখেছেন অনেকেই বলেছেন, রাজীব নন্দির বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের সত্যতা প্রমাণ না করে তার বিচার চাওয়া ঠিক নয়। এহেন সুশীল বক্তব্যে আমি বিরক্ত হলেও যুক্তিটা গ্রহণ করেছি। আর তাই এই মুহূর্তে নারী নিপীড়নের দায়ে অভিযুক্ত জাতীয় পত্রিকার সাবেক প্রতিবেদক এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক রাজীব নন্দির বিরুদ্ধে আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ অভিযোগ আনছি।

চবির ২০১০ সালের মাস্টার্সের টিউটোরিয়াল ৫০১ নম্বর কোর্সের পরীক্ষার ছবি এটি। এতে দেখা যাচ্ছে রাজীব নন্দি নকল করে পরীক্ষা দিচ্ছেন। এবার তাকে প্রতারণার দায়ে অভিযুক্ত করা যায় কি? আশা করি, সুশীলরা এবার তার বিরুদ্ধে কথা বলার মতো প্রমাণ হাতে পেয়েছেন।

প্রতারক, যৌন নিপীড়ক রাজীব নন্দির শাস্তি দাবি করছি। তাকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হোক। লেখালেখি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সংক্রান্ত সমস্ত স্থানে তাকে অবাঞ্ছিত এবং নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হোক। ওই ছবিটি নিয়ে ফেসবুকে এখন তোলপাড় চলছে।

বিষয়টি নিয়ে রাজীব নন্দিকে বারবার ফোন করেও পাওয়া যায়নি।

 

ঢাকা, ০৬ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//জেএন